‘হুমায়ূন আহমেদের জীবনের সম্পৃক্ততার কথা স্পষ্টভাবে অস্বীকার করেননি ফারুকী’

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়া হয়েছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত নতুন চলচ্চিত্র ‘ডুব’। ছবিটির সঙ্গে প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের জীবনীর কোন মিল আছে কিনা খতিয়ে দেখতে সেন্সর বোর্ডে লিখিত আবেদন করেছেন হুমায়ুনপত্নী নির্মাতা ও অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন। ছবিটির অনাপত্তিপত্র বাতিল করা হয়েছে। এমন অবস্থায় নিজের অবস্থান পরিস্কার করতে সংবাদ সম্মেলন করেন শাওন।

শাওন বলেছেন, ‘আমার আশঙ্কা সত্য বলে মনে হচ্ছে। কারণ ‘ডুব’ এর পরিচালক তার কোনো মন্তব্যে এখন পর্যন্ত ছবিতে হুমায়ূন আহমেদের জীবনের সম্পৃক্ততার কথা স্পষ্টভাবে অস্বীকার করেননি।’

পরিচালককে ইঙ্গিত করে শাওন বলেন, ‘একইজন একেক সময় একেক কথা বলছেন।’

ডুব’র অভিনেত্রী পর্ণ মিত্র তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছিলেন, ডুব ছবিতে তিনি যে চরিত্রটিতে অভিনয় করেছেন, সেটি শাওনের।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যের পাশাপাশি ‘ডুব’ চলচ্চিত্রের বিষয়ে পরিচালক-কলাকুশলীদের দেশি-বিদেশি বিভিন্ন পত্রিকায় দেওয়া ইন্টারভিউয়ের কাটিং এবং পর্ণ মিত্রের একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস তুলে ধরেন শাওন।

তিনি বলেন, ‘গত বছরের শেষ দিকে ভারতের একটি প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যম ‘আনন্দ বাজার’ এর কাছ থেকে প্রথম ‘ডুব’ ছবিটির পটভূমি সম্পর্কে জানতে পারি। আমাকে জানানো হয়, ছবিটি হুমায়ুন আহমেদের জীবনকে ঘিরে এবং হুমায়ুন পরিবারের কিছু সদস্যের চরিত্রও ছবিটিতে উঠে এসেছে যার মধ্যে আমিও আছি। খবরটি আমাকে বিস্মিত করে। তার পরপরই বাংলাদেশ এবং ভারতের প্রধান প্রধান সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট থেকে জানতে পারি যে আলোচ্য ছবিটি কিংবদন্তি কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের জীবনের কিছু স্পর্শকাতর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে।

নির্মাতা হিসেবে তিনি চান না, কোনো ছবি নিষিদ্ধ হোক। তার মতে, ‘ডুব’ ছবির বিতর্কিত অংশগুলো পরিমার্জন করে মুক্তি পেতে পারে।

 

Advertisement

কমেন্টস