চিরসবুজ রাজ্জাক

প্রকাশঃ জানুয়ারি ২৩, ২০১৭

নিয়াজ শুভ।।

ঢাকাই চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী নায়ক রাজ রাজ্জাকের ৭৬তম জন্মদিন আজ। ১৯৪২ সালের এই দিনে (২৩ জানুয়ারি) পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার টালিগঞ্জে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে তাঁর জন্ম। দীর্ঘ কর্মজীবনে ঢালিউডকে সাফল্যের চরম শেখরে পৌঁছে দিয়েছেন চিরসবুজ এই নায়ক।

কলকাতার থিয়েটারে অভিনয়ের মাধ্যমে শুরু হয় রাজ্জাকের পথচলা। ১৯৬৪ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে (বর্তমান বাংলাদেশ) চলে আসেন তিনি। প্রথমদিকে রাজ্জাক পাকিস্তান টেলিভিশনে ‘ঘরোয়া’ নামের একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করে দর্শকদের কাছে জনপ্রিয়তা পান। নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে আব্দুল জব্বার খানের সঙ্গে সহকারি পরিচালক হিসেবে কাজ করার সুযোগ পান তিনি। এরপর সালাউদ্দিন প্রোডাকশন্সের ‘১৩ নাম্বার ফেকু অস্তাগর লেন’ চলচ্চিত্রে ছোট একটি চরিত্রে অভিনয় করে সবার কাছে নিজ মেধার পরিচয় দেন রাজ্জাক।

১৯৬৬ সালে কিংবদন্তী চলচ্চিত্র নির্মাতা জহির রায়হানের ‘বেহুলা’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে মূল ধারার নায়কে নাম লেখান রাজ্জাক। খুলে যায় তাঁর ভাগ্যের দুয়ার। সাফল্য ধরা দেয় তাঁর ক্যারিয়ারে। আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক ব্যবসাসফল ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকহৃদয়ে স্থায়ী জায়গা করে নেন নায়ক রাজ রাজ্জাক।

৬০ এর দশকের শেষ থেকে ৭০ ও ৮০ দশকে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ওঠেন রাজ্জাক। তিনশোর বেশি চলচ্চিত্রে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেন তিনি। ১৯৯০ পর্যন্ত বেশ দাপটের সঙ্গে ঢালিউডে নায়ক চরিত্রে অভিনয়ের কারণে অর্জন করেন নায়ক রাজ রাজ্জাক খেতাব। এছাড়াও কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ একাধিকবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। আন্তর্জাতিক সম্মাননাও জমা হয়েছে তাঁর প্রাপ্তির ঝুলিতে।

বরাবরের মতো এবারের জন্মদিনে ভক্তদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন জীবন্ত কিংবদন্তি এই নায়ক রাজ। চলচ্চিত্রে নিয়মিত না থাকলেও ঢাকাই চলচ্চিত্রের বটবৃক্ষ তিনি। পরম ছায়ায় আগলে রেখেছেন সকলকে। এমন আরো অনেক জন্মদিন আসুক তাঁর জীবনে, এমনটাই চাওয়া ভক্তকুলের। ভালো থাকুক নায়ক রাজ রাজ্জাক। বিডিমর্নিং পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর জন্য শুভ কামনা।

Advertisement

কমেন্টস