কাজটাকে আমি চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিঃ বৃষ্টি ইসলাম

প্রকাশঃ জুন ১৯, ২০১৬

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী বৃষ্টি ইসলাম। মায়াবী চোখ এবং সাবলীল অভিনয়ে খুব কম সময়েই দর্শকপ্রিয়তার শীর্ষে চলে এসেছেন তিনি। একের পর এক কাজে বাজিমাত করে চলেছেন। আসছে ঈদ উপলক্ষ্যে নাটক, মিউজিক ভিডিওসহ বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন। সম্প্রতি তার কাজের ব্যস্ততা এবং ব্যক্তি বৃষ্টিকে নিয়ে কথা হলো বিডিমর্নিং এর সাথে। সাক্ষাতে ছিলেন নিয়াজ শুভ-

কেমন আছেন?

বৃষ্টিঃ ভালো।

ব্যস্ততা কেমন চলছে?

বৃষ্টিঃ ঈদের কাজ নিয়েই এখন সকল ব্যস্ততা। সম্প্রতি ইমরানের ‘বাহুডোরে’ শিরোনামের নতুন গানটির মিউজিক ভিডিওতে কাজ করলাম। এছাড়াও কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতে কাজের জন্য বেশ ব্যস্ত সময় পার করতে হলো। আগামী ২৫ তারিখের পর থেকে আবারো নাটকের কাজ শুরু হবে।

হাতে নতুন কি কি কাজ আছে?

বৃষ্টিঃ এখন অনেক কাজের অফার পাচ্ছি। যদি চাই প্রতিদিন কাজ করবো সেটাও সম্ভব। আপাতত ঈদের পর কয়েকটি সিরিয়াল এবং বিজ্ঞাপনের কাজ শুরু করবো।

কাজের ক্ষেত্রে পরিবারের সাপোর্ট…

বৃষ্টিঃ শুরুতে আমার পরিবার মোটেও রাজি ছিলো না। তাদের কোন সাপোর্ট পাই নাই। কিন্তু এখন তারা মেনে নিয়েছে। আমার কাজের সাফল্যে তারাও খুশি। তবে এখনও কাজের ক্ষেত্রে ঢাকার বাইরে যাওয়া নিষেধ।

অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন ছিলো?

বৃষ্টিঃ না। ফ্যাশন ডিজাইনার হতে চেয়েছিলাম। কখনো ভাবিনি আমি মিডিয়ায় কাজ করবো। ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিলো আমি ফ্যাশন নিয়ে কাজ করবো।

তাহলে বিনোদন জগতকে কেন বেছে নিলেন?

বৃষ্টিঃ আসলে হঠাৎ করেই মিডিয়ায় কাজ শুরু করি। আমার খুব কাছের একজন মানুষের অনুপ্রেরণায় কাজের হাতেখড়ি। যদিও শুরুতে পরিবারের সাপোর্ট পাই নাই। তবুও কাজটাকে আমি চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি।

কাছের সেই মানুষটি কে?

বৃষ্টিঃ (হেসে) সেটা না বলি।

ক্যামেরার সামনে প্রথম কাজের অভিজ্ঞতা…

বৃষ্টিঃ অবশ্যই নার্ভাস ছিলাম। কিভাবে কি করবো বুঝতে পারছিলাম না। তবে শুটিং ইউনিটের সকলের সাপোর্টে কাজ করতে আর কোন সমস্যা হয়নি। কাজটি ভালোভাবেই শেষ করেছিলাম।

প্রথম কাজ…

বৃষ্টিঃ ২০১৪ সালে মাসুদুল হাসানের ‘সাফিয়া’ নামের একটি ছবি দিয়ে কাজ শুরু করি। যদিও পরবর্তিতে আমার কিছু ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে কাজটি শেষ করতে পারি নাই।

অভিনয়ে নিজেকে কতটুকু প্রস্তুত মনে হয়?

বৃষ্টিঃ আমি এখনো শিখছি। আসলে শেখার কোন শেষ নেই। যতদিন যাচ্ছে আমরা শিখছি।

নিজেকে কোন চরিত্রের জন্য যোগ্য মনে হয়?

বৃষ্টিঃ চ্যালেঞ্জিং যে কোন চরিত্র। আমার মনে হয় এই চরিত্রটি আমি বেশ ভালো করতে পারবো।

গ্রামে যাওয়া হয়?

বৃষ্টিঃ এখন খুব বেশী যাওয়া হয় না। ছোটবেলায় দাদুবাড়ি যেতাম।

বাংলা সিনেমার ব্যাপারে আপনার কি ধারণা?

বৃষ্টিঃ আমাদের দেশের চলচ্চিত্র আগের চেয়ে বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে। ছবির মানও বেশ ভালো। এছাড়া এখন যৌথ প্রযোজনায় ছবি নির্মাণের সংখ্যা বেড়েছে, যা আমাদের দুই দেশের ভাবমূর্তি উন্নয়নে যথেষ্ট ভূমিকা পালন করছে।

পছন্দের অভিনেতা…

বৃষ্টিঃ সালমান শাহ। তবে ফেরদৌস ভাইয়া, রিয়াজ ভাইয়াও আমার খুব প্রিয়।

বৃষ্টির আইডল কে?

বৃষ্টিঃ বাবা-মা।

শুটিংয়ে মজার কোন ঘটনা?

বৃষ্টিঃ ইমরানের মিউজিক ভিডিওর কাজে একবার মানিকগঞ্জের জমিদার বাড়িতে গিয়েছিলাম। আম্মুও আমার সাথেই গিয়েছিলো। সেখানে যাওয়ার পর পরই লোকজনের ভিড় বাড়তে থাকে। উৎসুক দর্শকের অনেকেই আম্মুকে বলে আন্টি আপু অনেক সুন্দর তার সাথে ছবি তুলবো একটু সুযোগ করে দিন। সেদিন শুটিং শেষে অনেক সেলফি তুলেছিলাম। সকলের ভালোবাসা পেয়ে নিজেকে সত্যিই অনেক ভাগ্যবতী মনে হয়েছিলো।

অভিনয় কি নিয়মিত করবেন?

বৃষ্টিঃ ইচ্ছা আছে, ভালো কিছু হলে অবশ্যই করবো।

আগের বৃষ্টির সঙ্গে বর্তমান বৃষ্টির অমিল…

বৃষ্টিঃ আগে অনেকেই চিনতো না। এখন বেশ পরিচিতি পেয়েছি। অসংখ্য মানুষের ভালোবাসা পাওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে।

বৃষ্টির জীবনের বিশেষ মানুষটি কে?

বৃষ্টিঃ সেভাবে বিশেষ কেউ নেই। আমার কাছে আমার ফ্যামিলিই সব।

বিয়ে করছেন কবে?

বৃষ্টিঃ আপাতত বিয়ে নিয়ে কোন পরিকল্পনা নেই। পরিবারের পছন্দেই বিয়ে করবো। আমি বড় মেয়ে। আমার ছোট আরো দুই বোন আছে। বড় মেয়ে হওয়ায় আমার বিয়ে নিয়ে বাবা-মার অনেক স্বপ্ন রয়েছে। বিয়েটা ঠিক কতোদিন পর জানিনা। তবে পছন্দমত ছেলে পেলেই বিয়ে করে ফেলবো।

অবসর সময় কি করতে পছন্দ করেন?

বৃষ্টিঃ শপিং, মুভি দেখা আর গান শোনা। মিউজিক ছাড়া আমার একটা দিনও কাটে না।

ঈদের প্ল্যান কি?

বৃষ্টিঃ সারাদিন বাসায়ই থাকবো। সন্ধ্যায় ফ্রেন্ডদের সঙ্গে ঘুরতে বের হবো। ঈদে ঢাকার রাস্তা ফাঁকা থাকে। গাড়ি নিয়ে পুরো ঢাকা ঘুরবো। তারপর কোন রেস্টুরেন্টে বসে খাওয়া-দাওয়া করবো।

ভক্তদের উদ্দেশ্যে কিছু বলেন…

বৃষ্টিঃ ভক্তদের জন্যই আমি আজকের বৃষ্টি। তাদের অনেক লাভ করি। চেষ্টা করছি ভালো কিছু কাজ উপহার দিতে। ভবিষ্যতেও সেই চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

এতক্ষণ সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

বৃষ্টিঃ আপনাকেও ধন্যবাদ।

 

Advertisement

কমেন্টস