শিক্ষকের মাথায় মলমূত্র ঢেলে লাঞ্ছিত করায় বশেমুরবিপ্রবিতে মানববন্ধন

প্রকাশঃ মে ১৬, ২০১৮

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় মাদ্রাসা শিক্ষকের মাথায় মলমূত্র ঢেলে লাঞ্ছিত করা এবং ফিলিস্তিনে চলমান নৃশংস ও অমানবিক গণহত্যার বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষকবৃন্দ এক প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনের আয়োজন করেন।

আজ বেলা ১:৩০ টার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনের ঢাকা-পিরজপুর মহাসড়কে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ এ কর্মসূচিতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেন।

মানববন্ধন থেকে কাঁঠালিয়া ইসলামিয়া দারুস সুন্নাহ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবু হানিফার উপর সংঘটিত নজিরবিহীন লাঞ্ছনার বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। কর্মসূচিতে বক্তৃতা প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইটিই বিভাগের সভাপতি ড.মোঃ শাহজাহান, এসিসিই বিভাগের সভাপতি ড.দেবব্রত পাল এবং  ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মসিউর রহমান সহ আরও অনেকেই। এসময় শিক্ষকবৃন্দ বলেন, `অন্যায়ে মোড়ানো বর্তমান সমাজ ব্যবস্থা আর রাজনীতির নামে চলমান আদর্শহীন ক্ষমতার দ্বন্দ্ব শিক্ষক সমাজকেও ক্রমাগত কলুষিত, প্রশ্নবিদ্ধ ও বিপর্যস্ত করছে।

শিক্ষকবৃন্দের মর্যাদা প্রান্তরেখায় নিয়ে যাবার কাঠামোগত ও সামাজিক আয়োজন চলমান রয়েছে। মর্যাদাভাঙ্গা এই শিক্ষক শ্রেণিকক্ষে মাথা উঁচু করে অন্যায়ের প্রতিবাদ শেখানোর মত সাহস নিয়ে আর দাঁড়াতে পারবেন কিনা জানি না। সামাজিক মর্যাদার প্রান্তে যাওয়া শিক্ষকদের শ্রেণিকক্ষে যে শিক্ষার্থীরা শিক্ষা নেবেন তাদের মননের গঠন যে আক্রান্ত হবে তা নিঃসন্দেহে যায়।

এ লজ্জা পুরো শিক্ষক সমাজের।’ তাই শিক্ষক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদেরকে কলুষিত না করার জন্য রাজনীতিবিদ, সমাজ নেতা ও আমলাদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। সেই সাথে আবু হানিফাকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় প্রকৃত দোষীদের খুজে বের করে বিচারের আওতায় আনার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবী জানানো হয়।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন কর্মচারি আজ সকালে গোপিনাথপুর এলাকায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ায় মানববন্ধনের শুরুতে শিক্ষকবৃন্দ এক মিনিট নীরবতা পালন করেন এবং এ দুর্ঘটনা সংঘটনের সাথে জড়িতদের শাস্তি কামনা করেন।

কমেন্টস