বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১২, ২০১৮

মো. শেখ রাসেল, জাবি প্রতিনিধি:

১২ জানুয়ারি ১৯৭১ সাল, রাজধানী ঢাকার অদূরে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধের পাশেই ৬৯৭.৫৬ একর জায়গা নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় তৎকালীন জাহাঙ্গীরনগর মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়। যা পরবর্তীতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) নামে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠা পায়। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে ২০০১ সাল থেকে পালিত হয়ে আসছে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। বরাবরের মতো এবারো বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও নানান আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৮ তম জন্ম দিবসটি পালন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলে।

আজ শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ চত্বরে জাতীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসটির অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়। পরে বেলুন উড়িয়ে দিবসের উদ্বোধন ঘোষণা করে উপাচার্য ড.ফারজানা ইসলাম।

উদ্বোধনেরর পর একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগ ও হল আলাদা আলাদা ব্যানার নিয়ে আনন্দ শোভাযাত্রায় অংশ নেন। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিল আল দীন মুক্তমঞ্চে এসে শেষ হয়। এতে, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা – কর্মচারী ও প্রাক্তনরা ও অংশ নেন। আনন্দ আর উচ্ছাসে ভরপুর ছিল শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ কারীদের।

উদ্বোধনী বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়েরর উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, সুদীর্ঘ ৪৮ বছরের পথচলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মুক্তচিন্তা ও জ্ঞান-বিজ্ঞানের চর্চা এবং গবেষণায় অনন্য সাফল্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম বহুগুণে বৃদ্ধি করেছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান। বিশ্ববিদ্যালয়ের শুভ জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বক্তব্য শেষ করেন।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় উপ-উপাচার্য় (শিক্ষা) ড. আবুল হোসেন ও উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. আমির হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ও ট্রেজারারর, রেজিস্টার, প্রক্টর, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এবারের বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের দিনব্যাপী আয়োজনে আরো ছিলো, আলোচনা সভা, বেলা ৩টায় মুক্তমঞ্চে পুতুল নাট্য পরিবেশন, বিকেল ৪টায় পিঠা উৎসব ও সবশেষে ৫টায় ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের আয়োজনে জমজমাট সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় গানের পরিবেশনা।

কমেন্টস