পার্লার থেকে চাঁদা দাবি, ২ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

প্রকাশঃ জুলাই ২১, ২০১৮

বশির আলমামুন, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রাম নগরের মোটেল সৈকতের র্স্পা পার্লার থেকে একলাখ টাকা দাবির অভিযোগে সিএমপি’র কোতোয়ালী থানার এক এসআই ও এএসআইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার নগরের ষ্টেশনরোডস্থ মোটেল সৈকতের র্স্পা পার্লার থেকে একলাখ টাকা দাবির অভিযোগে ২ জনকে প্রত্যাহার করা হয়।

প্রত্যাহারকৃতরা হলেন, কোতোয়ালী থানার অধিনে সিআরবি পুলিশ ফাাঁড়ির আইসি এসআই গোলাম ফারুক ভুঁইয়া ও এএসআই ফয়সাল মুরাদ।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহামদ মহসীন প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, প্রশাসনিক কারণে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের নির্দেশে গত বৃহস্পতিবার এ দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

জানা যায়, নগরীর স্টেশন রোডে অবস্থিত পর্যটন কর্পোরেশনের নিয়ন্ত্রিত মোটেল সৈকতে পর্যটন কর্পোরেশনের যথাযথ নিয়মকানুন মেনে এবং সরকারি বিধি বিধান অনুসরণ করে দুটি র্স্পা পার্লার চলে আসছে। গত ৪ জুলাই সন্ধ্যায় কোতোয়ালী পুলিশ র্স্পা পার্লার দুটিতে অসামাজিক কর্মকান্ডের অভিযোগে সেখানে অভিযান চালিয়ে ১৪ তরুণী ও ৪ যুবককে আটক করে।

এ্যারোমা থাই র্স্পা পার্লারের ম্যানেজার জাহাঙ্গীর জানান, অভিযানের সময় পুলিশের দুই সদস্য এসআই গোলাম ফারুক ভুঁইয়া ও এএসআই ফয়সাল মুরাদ র্স্পা পার্লার দুইটির মালিকের কাছে একলাখ টাকা দাবি করে। অন্যথায় ওসি মহসীনের সাথে যোগাযোগ করার জন্য চাপ সৃষ্টি করে বলে দাবি করেন তিনি।

এদিকে র্স্পা পালার থেকে ১৮ নারী পুরুষকে আটক করা হলেও পরদিন সকালে তাদের সিএমপির এ্যাক্ট ৭৬ ধারায় আদালতে চালান দিলে তারা ১০০ টাকা জরিমানা দিয়ে জামিন পেয়ে যায়। এ ছাড়া পুলিশ মামলায় র্স্পা পার্লার থেকে আটকের বিষয়টি উল্লেখ না করে স্টেশন রোড় এলাকায় অভিযান চালানো হয় বলে উল্লেখ করা হয়।

টাকা লেনদেন এবং ওসির সাথে যোগাযোগের বিষয় সম্পর্কে জানতে চাইলে এসব বিষয় অস্বীকার করে ওসি মহসীন বলেন, টাকা লেনদেনের কোন বিষয় আমার জানা নেই। অসামাজিক কর্মকান্ডের অভিযোগ পেয়েই আমরা অভিযান চালিয়েছি।

এ অভিযান নিয়ে পুলিশের মধ্যে তোলপাড় চলে এবং পুলিশের সাথে আর্থিক লেনদেনের কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ পুলিশের উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষের হাতে পৌছে।

এতে বিষয়টি অনুসন্ধানে নামে পুলিশ প্রশাসন। পরে এসআই গোলাম ফারুক ভুঁইয়া ও এএসআই ফয়সাল মুরাদকে শাস্তিমূলক প্রত্যাহার করা হয়।

কমেন্টস