ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ৬৮ বছর কারাদণ্ডের রায়

প্রকাশঃ এপ্রিল ১৭, ২০১৮

ক্রাইম ডেস্ক।।

ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের সাবেক পাঁচ কর্মকর্তার প্রত্যেককে ৬৮ বছর করে কারাদণ্ড ও দুই ব্যবসায়ীকে ১৭ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দুর্নীতির পৃথক চারটি মামলায় তাদের বিরুদ্ধে এ রায় ঘোষিত হয়, একই সঙ্গে প্রত্যেককে ১ কোটি ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক আখতারুজ্জামান এ রায় দেন।

জানা যায়, ব্যাংকের সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহ মো. হারুন, সাবেক সিনিয়র অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট আবুল কাশেম মাহমুদুল্লাহ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহমুদ হোসেন, সাবেক এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (ইভিপি) কামরুল ইসলাম, সাবেক অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট (এভিপি) ফজলুর রহমান, নূর অ্যান্ড সন্স-এর মালিক তরিকুল ইসলাম ও মেসার্স আফাজউদ্দিন ট্রেডার্সের মালিক সালাহউদ্দিন দণ্ডপ্রাপ্ত সাতজন আসামি।

তবে দণ্ডিত  সবাই পলাতক রয়েছেন। এ ছাড়া ওই মামলায় ব্যাংকটির সাবেক উপব্যবস্থাপনা পরিচালক ইমামুল হক খালাস পেয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৩১ জানুয়ারি দুদক কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম ওই সাতজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, মেসার্স আফাজউদ্দিন ট্রেডার্সের নামে যে হিসাব খোলা হয়, তা শনাক্তকারী আলম ট্রেডার্সের মালিক আলমকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

তদন্তে জানা যায়, ওই ব্যাংকের কর্মকর্তা শাহ মো. হারুনের নির্দেশই হিসাব খোলা হয়েছে। তার নির্দেশেই ব্যাংকটির কর্মচারী-কর্মকর্তারা হিসাব খোলার ফরমে স্বাক্ষর করেন।

আসামি শাহ মো. হারুন ক্ষমতার অপব্যবহার করেই প্রতারণার আশ্রয় নেন। তিনি সালউদ্দিনের মালিকাধীন মেসার্স আফাজউদ্দিন ট্রেডার্সের নামে ভুয়া শনাক্তকারী দিয়ে হিসাব খোলান এবং আসামিরা পরস্পরের যোগসাজশে এক কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন।

কমেন্টস