ইভটিজিংয়ে বাধা দিতে গিয়ে দু’জন গুরতর আহত

প্রকাশঃ এপ্রিল ১৬, ২০১৮

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ 

মাদারীপুরে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় হামিম খান ও শাহিন সরদার নামে দুইজন গুরতর আহত হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রবিবার বেলা ১১টায় সদর উপজেলার পুলিশ সুপার কার্যালয়ের পূর্ব পাশে শকুনি লেকপাড় এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে সোমবার সকালে একটি মামলা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মাদারীপুর সদর থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হামিম ও শাহিন সরদার বৈশাখী মেলার মাঝে একটি কসমেটিক্স এর দোকান নিয়ে ব্যাবসা করছে। ররিবার সকালে রিপন খানের বোনের মেয়ে ও তার কয়েক বান্ধবী মেলার স্টল ঘুরে দেখার জন্য আসে। পক্ষান্তরে শহরের বাগেরপাড় এলাকার আলামিন হাওলাদারের ছেলে অন্তর হওলাদার ও অমিত হওলাদার এদের বন্ধু আশিক ও জুলহাস সহ কিছু বখাটে ছেলে রিপোনের ভাগ্নীকে উদ্যেশো করে বাজে কথা বলে।

এই বিষয়টা কসমেটিক্স দোকানে থেকে বের হয়ে রিপনের ছোট ভাই হামিম প্রতিবাদ করলে, বখাটেরা চলে যায়। ঘটনার কিছুক্ষন পরে স্থানীয় কতিপয় সন্ত্রাসীদের নিয়ে পুণরায় মেলার মাঠে প্রবেশ করে রিপনের ছোট ভাইকে অন্যলোক দিয়ে দোকান থেকে ডেকে নিয়ে রানদা, স্যানদা দিয়ে এলোপাতারী ভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। দোকানের সহযোগী শাহিন সরদার ও পাশের কয়েক দোকানের লোকজন মিলে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

ইভটিজিং এর স্বীকার ছাত্রীর মামা রিপন খান বলেন, আমি ঐ বখাটে সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবি করছি।

দোকানের আহত শাহিন সরদার জানান, অপরিচিত এক লোক কথা বলার জন্য ডেকে দোকান থেকে হামিমকে বের করে। কিন্তু কিছু বুঝে উঠার আগেই পরিকল্পিত ভাবে আসা বখাটে সন্ত্রাসী অন্তর, অমিত, আশিক, জুলহাস সহ ১০/১২জন রানদা, স্যানদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হামিমকে গুরুতর জখম করে। এতে হামিমের দুইপা,হাতসহ একাধিক স্থানে কোপ লাগা প্রায় শতাধিক সেলাই দিতে হয়েছে।

আমি বাধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীদের কোপ আমার হাতেও লাগে। আমার ভাবতে অবাক লাগে এসপি অফিসের দেওয়ালের পাশেই বৈশাখী মেলার বিশাল আয়োজন করা হয়েছে। এ মেলায় আইন -শৃংখলা বাহিনী সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করে। তবুও কেন এই ঘটনা ঘটলো ? তাহলে আমাদের নিরাপত্তা কোথায়? এরকম হলে আগামীতে মেলার স্টল বেশীরভাগ খালি থাকবে। ঘটনায় জড়িত সকল সন্ত্রাসী বখাটেদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্থি দাবি করছি।

মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) মো. কামরুল হাসান জানান, এব্যপারে সোমবার সকালে একটি মামলা হয়েছে। আমরা তদন্ত সাপেক্ষে আসমীদের গ্রেফতার করব।

কমেন্টস