স্বপ্নের ‘বঙ্গবন্ধু ফিল্মসিটি ‘

প্রকাশঃ এপ্রিল ১৬, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আন্ধারমানিক ও আশুলিয়ার কবিরপুর এলাকায় শিগগির চালু হতে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফিল্মসিটি। দিন দিন বন্ধ হয়ে যাচ্ছে দেশের সিনেমা হলগুলো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফিল্মসিটি চালু হলে আলোর মুখ দেখবে চলচ্চিত্র জগৎ। এটি চালু হলে দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন পূরণ হবে চলচ্চিত্রশিল্পীদের।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আন্ধারমানিক ও আশুলিয়ার কবিরপুর এলাকায় ১০ হাজার ৩৯৫ শতাংশ (৩১৫ বিঘা) জমির উপর নির্মিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফিল্মসিটি।

বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ প্রায় শেষের দিকে। খুব শিগগিরই এটির উদ্বোধন করা হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফিল্মসিটি শুধু শুটিংয়ের জন্য নয়; এটি হবে বিনোদনকেন্দ্রও।এ ফিল্মসিটি চালু হলে সিনেমা নির্মাণের জন্য লোকেশনে ছবি চিত্রায়নের প্রয়োজনে বিভিন্ন প্রান্তে আর ছুটতে হবে না সিনেমা নির্মাতাদের।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফিল্মসিটিতে রয়েছে গ্রামীণ বাড়ি, বাজার, শুটিং রেস্টুরেন্ট, মেকআপ রুম, একটি লেক, একটি পুকুর, খেজুরবাগান, বিভিন্ন গাছের বন-জঙ্গল, একটি ব্রিজ, ডরমেটরিসহ বিভিন্ন অবকাঠামো। নির্মাতারা তাদের চিন্তার সামঞ্জস্য খুঁজে পাবেন এই ফিল্মসিটিতে। এ ফিল্মসিটি চালু হলে বাঁচবে নির্মাতাদের সময় ও অর্থ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফিল্মসিটিতে প্রবেশের জন্য দু’টি গেট রয়েছে। একটি গেট গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আন্দারমানিক এলাকা দিয়ে, অন্যটি আশুলিয়ার কবিরপুর দিয়ে। এ ফিল্মসিটির ভেতরে রাস্তা, বিভিন্ন ভবন ও গেট নির্মাণসহ শেষ পর্যায়ের বিভিন্ন কাজ চলছে। আন্ধারমানিক এলাকা দিয়ে এ ফিল্মসিটিতে ঢুকতেই হাতের বাঁ পাশে রয়েছে একটি বিশাল লেক এবং ডান পাশে একটি পুকুর। পুকুরঘাটটি বাঁধাই করা। এর দুই পাশে রয়েছে খেজুরগাছ। একটু সামনে গেলে হাতের ডান পাশে একটি টিনশেড ভবন। তার সামনে ফুলের বাগান। এখান থেকেই বাম দিক দিয়ে সোজা রাস্তাটি চলে গেছে কবিরপুর এলাকায় মূলগেট পর্যন্ত। ওই রাস্তটির বাঁ পাশে লেকসহ

কমেন্টস