আগামীকাল সঙ্গিতজ্ঞ অনিমেষ ব্যানার্জীর মৃত্যুবার্ষিকী

প্রকাশঃ এপ্রিল ১১, ২০১৮

রনজিৎ বর্মন, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি:

আগামীকাল ১২ এপ্রিল দক্ষিণ বাংলার বিশিষ্ট সেতার বাদক, সুরকার, গীতিকার ও প্রখ্যাত সঙ্গিতজ্ঞ অনিমেষ ব্যানার্জীর ১১তম মৃত্যু বার্ষিকী।

প্রখ্যাত সঙ্গিতজ্ঞ অনিমেষ ব্যানার্জী ১৯২৪ সালের ৫জুন সাতক্ষীরার  শ্যামনগর উপজেলার নকিপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা প্রয়াত গিরিন্দ্রনাথ ব্যানার্জী একজন সুরসাধক ও মাতা সরোজিনী দেবী ভক্তি গীতির সুগায়িকা ছিলেন। অনিমেষ ব্যানার্জী ছিলেন একজন সৃষ্টিশীল গীতিকার।

তিনি প্রায় তিনশত সংগীত রচনা করেছেন। তিনি প্রশিক্ষণ দিয়েছেন বহু শিক্ষার্থীকে। ১৯৭১ সালে যুদ্ধের সময় তিনি বিভিন্ন স্থানে স্বাধীনতার পক্ষে  সংগীত পরিবেশন করেছেন। ১৯৭৩ সালে থেকে তিনি বাংলাদেশ বেতারে সংগীত পরিবেশ করেছেন। এই গুণি শিল্পী সংগীত চর্চার পাশাপাশি শ্যামনগর সরকারী মহসীন ডিগ্রী কলেজে প্রধান সহকারীর দায়িত্ব পালন করেছেন।

অনিমেষ ব্যানার্জীর কন্যা সন্তান চন্দ্রিকা ব্যানার্জী, রিয়া ব্যানার্জী ,কেয়া ব্যানার্জী ও পরিবার বর্গের অন্যান্য সদস্যরা বিভিন্ন ভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন। তিনি ১৯৮৯ সালে এক জনসভায় শিশু শিল্পীদের সংগীতানুষ্ঠান পরিচালনার জন্য পুরষ্কার স্বরুপ তৎকালীন রাষ্ট্রপতির পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে জেলা ও উপজেলা থেকে সম্মাননা লাভ করেন। তিনি ২০০৭ সালের ১২ এপ্রিল মারা যান।

তার বড় কন্যা নকশীকাঁথার পরিচালক চন্দ্রিকা ব্যানার্জী বলেন অনিমেষ ব্যানার্জীর মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে পরিবারের পক্ষ থেকে আলোচনাসভা সহ অন্যান্য কর্মসূচি স্বল্প পরিসরে গ্রহণ করা হয়েছে।

কমেন্টস