নিখোঁজ মেরিনা: অপহরণ, নাকি প্রেম সাগরে পাড়ি?

প্রকাশঃ মার্চ ১২, ২০১৮

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ মহেশপুরে মেরিনা খাতুন (১৭) নামের সদ্য শেষ হওয়া এক এসএসসি পরীক্ষার্থী ১৫ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে তার কোন সন্ধার মিলাতে পারছে না।

ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের রিয়াজুল হকের কন্যা এসএসসি পরীক্ষার্থী মেরিনা খাতুন গত ২৫ ফেব্রুয়ারি সকালে আল হেলা মাদরাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে ব্যবহারিক পরীক্ষা দিতে এসে। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি সে। পরীক্ষা শেষে মেরিনা খাতুন আর বাড়ি ফেরেনি। পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করলেও পরীক্ষা দেয়নি। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে তাকে পাওয়া যায়নি।

এরপর ২৬ ফেব্রুয়ারি অচেনা মোবাইল ফোন থেকে ২ বার বাড়িতে ফোন করে কান্নাকাটি করে সে। কোন উপায় না পেয়ে নিখোঁজ এসএসসি পরীক্ষার্থী মেরিনা খাতুনের পিতা ২৮ ফেব্রুয়ারি মহেশপুর থানায় একটি জিডি করেন। জিডি নং-১২৪৩। নিখোঁজের ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও এখনও তার কোন সন্ধান মেলেনি।

এ ব্যাপারে নিখোঁজ এসএসসি পরীক্ষার্থী মেরিনা খাতুনের পিতা রিয়াজুল কাঁদতে কাঁদতে বলেন, গাড়াপোতা গ্রামের দাউদ মোল্লার ছেলে শাহীন আমার মেয়েকে বিভিন্ন ধরনের ভয় ভিতি ও উত্যক্ত করতো। আমার ধারনা শাহীনই আমার মেয়েকে অপহরণ করেছে।

আবার এলাকার অনেকে বলছেন, গাড়াপোতা গ্রামের শাহিনের সাথে মেরিনা খাতুনের প্রেম ছিল। তারা দু’জন একসাথে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছে।

মহেশপুর থানার ওসি জানান, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি মহেশপুর থানায় একটি জিডি হয়েছে। আমরা আমাদের তৎপরতা অব্যাহত রেখেছি মেরিনাকে উদ্ধারের জন্য।

কমেন্টস