বুড়িগঙ্গায় শেষ হলো শান্তর ভালোবাসা দিবসের ফুর্তি

প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ভালোবাসা দিবসের ফুর্তি শেষে বাড়ি ফেরার পথে বুড়িগঙ্গায় ডুবে রাকিবুল ইসলাম শান্ত (১৮) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টায় পাগলা এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শান্ত ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটি এলাকার মিলন মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া শফিকুল ইসলাম রতনের ছেলে। শান্ত পাগলা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে।

জানা যায়, পাগলা কোস্ট স্টেশনের সদস্যরা এক ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে বিকাল সাড়ে ৫টায় বুড়িগঙ্গা থেকে শান্তর লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এদিকে শান্তর মা আসমা বেগমের দাবি, শান্তকে পরিকল্পিতভাবে নদীতে ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে হত্যা করেছে তার বন্ধুরা।এই ঘটনায় নৌপুলিশ শান্তর চার বন্ধুকে আটক করেছে। আটককৃতদের মধ্যে তিনজন এসএসসি পরীক্ষার্থী।

আটককৃতরা হলো- ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটি এলাকার আবুল বাশারের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেল, একই এলাকার হাকিম হাওলাদারের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী সজিব, আমির হোসেনের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী মেহেদী হাসান শুভ ও একই এলাকার মোখলেছের ছেলে ওয়ার্কসপের শ্রমিক রাব্বি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাগলা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ফরহাদ আলম  জানান, ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে শান্ত তার চার বন্ধুর সঙ্গে বুড়িগঙ্গা নদীর অন্য পারে কেরানীগঞ্জের পানগাও এলাকায় ঘুরতে যায়। সেখানে আনন্দ ফুর্তি শেষে একটি ট্রলারে বাড়ি ফেরার পথে বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে বুড়িগঙ্গা নদীতে পড়ে ডুবে যায়। ঘটনাটির তদন্ত চলছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্টে মৃত্যুর কারন জানা যাবে বলে তিনি জানান।

কমেন্টস