ভৈরবে পূজা মণ্ডপে ইভটিজিংয়ের দায়ে যুবক আটক

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১৪, ২০১৮

রাজীবুল হাসান, ভৈরব প্রতিনিধি:

পৌষের শেষে মাঘের আগমনে দক্ষিণ ঋষিপট্টি কালিমন্দির প্রাঙ্গনে কল্যাণ যুব সংঘের আয়োজনে বাৎসরিক শ্রী শ্রী রক্ষাকালীন পূজায় আগত তরুনীদের ইভটিজিংয়ের দায়ে এক কিশোরকে আটক করেছে ভৈরব থানা পুলিশ।

আজ রবিবার সকাল কালিমন্দির সংলগ্ন মেঘনা নদীর পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটকৃত যুবক ভৈরব বাজার টিনপট্টি এলাকার শামীম মিয়ার ছেলে সিহাব (১৪)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকাল কালিমন্দির সংলগ্ন মেঘনা নদীর পাড়ে গঙ্গা পূজায় আগত মেয়েদের উত্ত্যক্ত করে কয়েকজন বখাটে যুবক। এ সময় যুব সংঘের দায়িত্বরত বলান্টিয়াররা বখাটেদের বাধা দিলে তারা চলে যায়। তাৎক্ষণিক কিছু সময় পর ১৫/২০ জনের বখাটে এসে পূজামণ্ডপে ভাংচুর চালায় এবং বলান্টিয়ারদের উপর হামলা চালায়। এ সময় এলাকাবাসীর তৎপরতায় সবাই পালিয়ে গেলেও কিশোর সিহাবকে আটক করে এলাকার কাউন্সিলরের সহযোগিতায় তাকে ভৈরব থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করে।

স্থানীয় কাউন্সিলর ও পৌর প্যানেল মেয়র মো. আল আমিন জানান, সিহাব এক বখাটে ছেলে। তার বিরুদ্ধে এমনকি তার পরিবারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। আজ কিছু বখাটে ছেলেদের সাথে মিলে মেঘনা নদীর পাড় গঙ্গা পূজা করতে আসা মেয়েদের উত্ত্যক্ত করায় তাকে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় আটক করে পুলিশে কাছে হস্তান্তর কওে দওেয়া হয়।

যুব কল্যাণ সংঘের সভাপতি চন্দন দাস জানান, গঙ্গা পূজা শুধু নারীদের পূজা। এ পূজায় পুরুষরা অংশগ্রহণ করে না। কিন্তু আমাদের মা বোন এ পূজায় আসায় আমাদের যুব সংঘের উদ্যোগে তাদের সহযোগিতায় আমরা কিছু বলান্টিয়ার চারিদিকে ছড়িয়ে রেখেছিলাম। কিন্তু কিছু বখাটে দল বেধে এসে এখানে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করে। এ সময় আমাদের কিছু বলান্টিয়াদের উপর হামলা চালিয়ে তাদের মারধর করে।

ভৈরব থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মোখলেছুর রহমান জানান, ঋষিপট্টি পূজা মণ্ডপ হতে সিহাবকে আটক করা হয়। এ সময় এলাকাবাসীর অভিযোগ ছিল পূজা মণ্ডপে আসা মেয়েদের উত্ত্যক্ত করেছিল সিহাব ও তার বন্ধুরা। এখন তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

কমেন্টস