জেরুজালেম ইস্যুতে বিশ্বের সকল মুসলমানকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী’র

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ৭, ২০১৭

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতিসংঘের প্রস্তাব ছাড়া জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে কেউ মেনে নেবে না।বৃহস্পতিবার বিকেলে গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখে হাসিনা এ কথা বলেন।

এ বিষয়ে বিশ্বের সকল মুসলমানকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী করা মানে বিশ্বে অশান্তি ডেকে আনা।

প্রসঙ্গত, কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর সে দেশ সফর করেন। সংবাদ সম্মেলনে এ সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন তিনি।

উল্লেখ্য পুরো বিশ্বের মতামতকে উপেক্ষা করে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে স্বীকৃতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর ফলে ১৯৪৮ সালে ইসরায়েল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পর এই প্রথম কোনো রাষ্ট্র হিসেবে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিল যুক্তরাষ্ট্র।

বুধবার হোয়াইট হাউজে দেয়া এক ভাষণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণা করেন। তার এ সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছেন বিশ্ব নেতারা।

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের বাইরে বিক্ষোভ প্রতিবাদ হয়েছে। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক সমস্ত মুসলিমকে জেগে উঠার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, যেকোনো স্থানের মুসলিমদের এটা পরিষ্কার করে জানিয়ে দিতে হবে যে, আমরা যুক্তরাষ্ট্রের এমন ঘোষণার কড়া নিন্দা জানাচ্ছি।

উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল, ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রো। তারা উভয়েই বলেছেন, ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তে তাদের সমর্থন নেই।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টনিও গুতেরেস বলেছেন, এটা হলো গভীর হতাশার একটি মুহূর্ত। দ্বিরাষ্ট্র ভিত্তিক সমাধানের কোনো বিকল্প নেই।

বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’র মুখপাত্র বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এমন সিদ্ধান্ত আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠায় কোনো সহায়ক হবে না। ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের প্রধান কূটনীতিক ফেদেরিকা মোঘেরিনি বলেছেন, দুই রাষ্ট্রের সমাধানে বিশ্বাস করে ইইউ। মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রক্রিয়ায় আঘাত হানতে পারে এমন যেকোনো পদক্ষেপ এড়িয়ে চলা উচিত।

কমেন্টস