নরসিংদীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী ও পিতার হাতে মেয়ে খুন

প্রকাশঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৭

সাইফুল ইসলাম, নরসিংদী-

নরসিংদীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী ও মেয়ে খুনের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর থেকে ঘাতক স্বামীর পলাতক রয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় শহরের ঘোড়াদিয়া এলাকার একটি ভাড়া বাড়ি থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতরা হলেন, জেলার রায়পুরা উপজেলার চরমধুয়া ইউনিয়নের গাজীপুরা গ্রামের কবির হোসেনের স্ত্রী হাফেজা বেগম (৩৫) ও তাঁর মেয়ে সাদিয়া বেগম (৫)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রাজিয়া বেগম অন্ধ। তিনি ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করতো। আর স্বামী কবির হোসেন একজন রিক্সা চালক। মাদকাসক্ত কবির হোসেন টাকার জন্য অন্ধ হাফেজা বেগমকে প্রায়ই নির্যাতন করতো।

মঙ্গলবার সকাল থেকে শহরতলীর ঘোড়াদিয়া বনিক পাড়ার ওই ঘরের দরজা বন্ধ দেখে বাড়ির ভাড়াটিয়া রাশিদা ও মিনারা বেগমের সন্দেহ হয়। তাঁরা ঘরের ভেতর ঢুকে দেখে মেঝেতে হাফেজা বেগমের ও বিছানায় মেয়ে সাদিয়া বেগমের লাশ দেখতে পায়।

পরে ভাড়াটিয়া রাশিদা বাড়ির মালিক দেলোয়ার হোসেনকে বিষয়টি অবহিত করে ।দেলোয়ার হোসেন তাৎক্ষনিক পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ নিহত মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তর জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করে।

নরসিংদী সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক তাপস রায় জানান, নিহতদের গলায় হাতের ছাপ রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে এই মা-মেয়েকে শ্বাসর“দ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে এবং ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে মৃত লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করেন। পুলিশ ঘাতক স্বামীকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান শুর“ করেছে।

কমেন্টস