ঝালকাঠিতে যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের বাধা

প্রকাশঃ অক্টোবর ১০, ২০১৭

খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি-

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারীর প্রতিবাদে কেন্দ্রী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ঝালকাঠির কামারপট্টি রোডস্থ জেলা যুবদলের কার্যালয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু করলে পুলিশ তাতে বাধায় দেয়।

মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) বিকেল ৪ টায় কামারপট্টি রোডস্থ জেলা যুবদলের কার্যালয়ে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শামীম তালুকদারের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন যুবদলের কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আলাউদ্দিন খান, যুবদল নেতা ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনিচুর রহমান খান, যুবদল নেতা ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফয়সাল খান, যুবদলের সদর উপজেলা সভাপতি শওকত হোসেন খোকন মল্লিক, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক সরদার সাফায়াত হোসেন, যুগ্ম আহ্বায়ক মুশফিকুর রহমান বাবু, আরিফুর রহমান খানসহ যুব ও ছাত্রদলের বিভিন্ন পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

জেলা যুবদলের সাধারন সম্পাদক শামীম তালুকদার বলেন, ‘আমরা দলীয় কার্যালয়ে শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচী শুরু করেছিলাম। পুলিশ আমাদের কার্যালযের মধ্যে ঢুকে নেতাকর্মীদের ধাওয়া করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।’

জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মনিরুল ইসলাম নুপুর সমাবেশ না করার জন্য পুলিশকে ইন্ধন দিয়েছে বলে অভিযোগ এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেন। জেলা যুবদলের কার্যালয়ে এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক, যুবদলের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক ছাত্রনেতা মাহবুবুল হক নান্নু।

জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মনিরুল ইসলাম নুপুর জানান, আমি ঢাকায় আছি। যুবদলের অনুষ্ঠানে আমরা কেন বাধা দিবো। যুবদলের অধিকাংশ নেতাকর্মী আমাদের সাথে থাকায় তাদের নেতাকর্মী কম হওয়ায় মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছে।

ঝালকাঠি সদর থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, নিজেদের মধ্যে দলীয় কোন্দল থাকায় সাধারন সম্পাদক মনিরুল ইসলাম নুপুর তাদের কর্মসুচি করতে দেয় নাই। আমরা যুবদলের কর্মসূচীতে কোন বাধা দেই নাই।’

 

Advertisement

কমেন্টস