মসজিদ সংস্কারের নামে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭

হারুন-উর-রশীদ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে মসজিদ সংস্কারের নামে বরাদ্দকৃত টিআর প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোস্তাফিজার রহমান মিলনের বিরুদ্ধে।

বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) উপজেলা প্রেসক্লাবে লিখিত অভিযোগ করেন, খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নলডাঙ্গী জামে মসজিদ ও প্রকল্প কমিটির সভাপতি মো. জহুরুল ইসলাম। অভিযোগে বলা হয়েছে, খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য মো. মোস্তাফিজার রহমান মিলন সরকারের গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে বরাদ্দকৃত নলডাঙ্গী জামে মসজিদ সংস্কারের জন্য টিআর সাধারণ প্রথম পর্যায়ের ১টন চালের বিপরীতে দেওয়া ৩৮হাজার টাকার কোন টাকাই মসজিদ কমিটিকে দেননি। একই অভিযোগ খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের মুক্তারপুর জামে মসজিদ,দক্ষিণ মহদীপুর জামে মসজিদ এবং লালপুর দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদ কমিটি ও প্রকল্প কমিটির ।

উপজেলার খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের মুক্তারপুর জামে মসজিদ ও প্রকল্প কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আবুল মন্ডল জানান, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তার দপ্তরে ৫মাস আগে প্রকল্পের কাগজে সই করার বেশ কিছুদিন পর ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. জাকারিয়া জাকির ১৫হাজার টাকা মসজিদ কমিটিকে প্রদান করেন। একইভাবে নলডাঙ্গী জামে মসজিদ কমিটির কয়েকজন জানান, মসজিদ সংস্কারের কাজে ওই ওয়ার্ডের মেম্বার টি-আর বাবদ তাদেরকে ১৫হাজার টাকা প্রদান করবেন বলে জানিয়েছেন, যা আজও তারা পাননি। নিয়মানুযায়ী প্রত্যেকটি প্রকল্পের সংস্কার কাজ তদারকির দায়িত্ব উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তার উপর ন্যস্ত থাকলেও তিনি তা না করে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন বলে অভিমত স্থানীয়দের।

এবিষয়ে মুক্তারপুর জামে মসজিদ এলাকার ইউপি সদস্য জাকারিয়া বলেন, টিআর প্রকল্পের সম্পূর্ণ টাকা ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহেরের হাতে। তিনি তাকে ১৫হাজার টাকা মসজিদ কমিটির কাছে দিতে বললে সে চেয়ারম্যানের দেয়া টাকা তাদের কাছে পৌঁছায়ে দেন।

নলডাঙ্গী জামে মসজিদ এলাকার ইউপি সদস্য মো. মোস্তাফিজুর রহমান মিলন জানান, চেয়ারম্যান সাহেব মসজিদ সংস্কারের কাজে বরাদ্দকৃত টিআর প্রকল্পের সমুদয় টাকা উত্তোলনের পর তাকে (মেম্বারকে) ২০হাজার টাকা দিয়ে ১৫হাজার টাকা মসজিদ কমিটিকে এবং ৫হাজার টাকা তাকে নিতে বলেছেন।

এ ব্যাপারে খয়েরবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহেরকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে কিছু মেম্বার মিথ্যাচার করছে। আমি আপনাদের সাথে এবিষয়ে পরে কথা বলবো।

এবিষয়ে উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ২০১৬/২০১৭ অর্থবছরে বরাদ্দকৃত টি-আর প্রকল্পের আওতায় উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নের ন্যায় খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের মুক্তারপুর জামে মসজিদ, নলডাঙ্গী জামে মসজিদ, দক্ষিণ মহদীপুর জামে মসজিদ ও লালপুর দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদ সংস্কারের জন্য গত ২৯/০৩/২০১৭ ইং তারিখে ৪টি মসজিদের প্রকল্প কমিটির সভাপতির কাছে টি-আর প্রকল্পের চেক হস্তান্তর করা হয়েছে। এই প্রকল্পের টাকা কোন ভাবেই চেয়ারম্যান বা ইউপি সদস্যদের কাছে যাবার কথা নয়, কিন্তু কিভাবে তাদের হাতে এই প্রকল্পের টাকা গেল তা অবশ্যই তিনি খতিয়ে দেখবেন।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, তাহলে কিভাবে ইউপি চেয়ারম্যান ডিও বাবদ ৩৮হাজার টাকার মধ্যে কোন মসজিদে ১৫হাজার কোথাও বা ১৭হাজার আবার কোন মসজিদে অদ্যাবদি টাকা না দিয়ে  টালবাহানা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে গত জুন মাসেই এই প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও এখন পর্যন্তু  টাকা না পাওয়া মসজিদ কমিটির সদস্যরা জানেননা তাদের টাকা কোথায়। অপরদিকে উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা এখন পর্যন্ত কোন সংস্কার কাজের তদারকি  না করলেও এবিষয়ে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নিবেন বলে দায়সারা কথা বলছেন।

Advertisement

কমেন্টস