মাদক, অস্ত্র ও ১৭ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার যুবলীগ নেতা, অনুসারীদের বিক্ষোভে উত্তাল পেকুয়া

প্রকাশঃ আগস্ট ১৩, ২০১৭

তামিরুল ইসলাম, কক্সবাজার- 

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম এবং তাঁর চার ভাই আলমগীর, মো. আজম, মো. কাইয়ুম ও ওসমান সরওয়ার বাপ্পীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ ঘটনায় পেকুয়া বাজারে যুবলীগের নেতা-কর্মী ও জাহাঙ্গীর আলম এর অনুসারীরা বিক্ষোভ মিছিল, রাস্তা অবরোধ, সিএনজি ভাংচুর চালায়। এতে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে দোকান পাট বন্ধ হয়ে যায়।

রবিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে পেকুয়া সদরের চৌমুহনী স্টেশনসংলগ্ন বাড়ি থেকে র‍্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের একটি দল তাদের আটক করে। এই সময় ওই বাড়ি থেকে অস্ত্র, গুলি, মাদক ও ১৭ লাখ টাকা জব্দ করা হয়েছে।

জানা যায়, আটক হওয়া আলমগীর পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সদস্য, মো. আজম ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক, কাইয়ুম উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও ওসমান সরওয়ার বাপ্পী বর্তমান পেকুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের এক নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

র‍্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর রুহুল আমিন উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, আটকৃতদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীসহ বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্ট রয়েছে।

তিনি আরও জানান, অভিযানে জাহাঙ্গীরের বসতঘর থেকে দুইটি দেশে তৈরি কাটা বন্দুক, একটি লম্বা বন্দুক, ১০ রাউন্ড গুলি, একটি ইয়াবার প্যাকেট ও ১৭ লাখ নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

তবে জাহাঙ্গীর ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের দাবি জাহাঙ্গীর ও তার ভাইদের ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হয়েছে।

এদিকে, র‌্যাব এর কাছে জব্দকৃত টাকার পরিমাণ ১৮ লাখ বলে দাবি করছেন জাহাঙ্গীর আলমের পরিবার। এদিকে, আটক জাহা‌ঙ্গি‌রের পিতা র‌মিজ আহমদ বস্তু‌নিষ্ট সংবাদ প‌রি‌বেশ‌নের আহবান জা‌নি‌য়ে‌ছেন সাংবা‌দিক‌দের।

কমেন্টস