রায়পুরে জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকি ও ভয় নিয়ে কাজ করছে কৃষি কর্মকর্তারা

প্রকাশঃ আগস্ট ১৩, ২০১৭

ইমাম হোসেন, রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ

ঝুঁকি ও ভয়ের মধ্য দিয়ে কাজ করছে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা। দীর্ঘদিন থেকে জরাজীর্ণ ঝুঁকিপুর্ন ভবনে কাজ করছেন তারা।

অন্যদিকে ভয়ে জরাজীর্ণ ভবনের মাত্র একটি কক্ষে কার্যক্রম পরিচালনা করছেন তারা। ফলে স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। বিশেষ করে মৌসুমের শুরুতেই বেশী দুর্ভোগে পড়তে হয়। তবে কয়েকবার নতুন ভবন ও সংস্কারের জন্য আবেদন করেও কোন সুফল পাওয়া যায়নি। তাই যতদিন যাচ্ছে ঝুঁকি ততই বাড়ছে।

সরেজমিনে ভবনটির তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে আমাদের প্রতিনিধির সামনেই ভবনের বারান্দার একটি অংশ ধসে পড়ে। তবে এতে কেউ আহত হয়নি। 

জরাজীর্ণ ভবনে কর্তব্যরত উপজেলা পিপিএম ফজলে রাব্বি বলেন, কয়েক বছর থেকে ভবনটি জরাজীর্ণ অবস্থায় আছে। প্রতিনিয়ত ভবনটি একটু একটু করে ভেঙ্গে পড়ছে। আর এই জরাজীর্ণের ফলে বর্তমানে ভবনের মাত্র একটি কক্ষে কাজ পরিচালনা করা হচ্ছে। তাও আবার ঝড়বৃষ্টি হলেই দুর্ঘটনার ভয়ে ভবনটি থেকে থেকে বের হয়ে যাই। অন্য দিকে জরাজীর্ণ ভবনের কারণে আমাদের মালামাল রাখতে ও যথাযথ কার্যক্রম পরিচালনা করতে খুবই অসুবিধা হয়।  

উপজেলা উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মিজান বলেন, ঘূর্নিঝড় আর ভূমিকম্পের কথা কি বলব অল্প বৃষ্টি হলেই ভয়ে কাজ ফেলে চলে যাই অন্য যায়গায়। কয়েক বছর থেকে ভবনে পাটল দেখা দিলেও নতুন ভবন অথবা সংস্কারের জন্য নেই কোন উদ্যোগ। দায়িত্বের কারণে জরাজীর্ণ এই ভবনের নিচে কাজ করি কিন্তু আমরা সারাক্ষন ভয়ের মধ্যে থাকি।  

রায়পুর উপজেলা কৃষি অফিসার জহির আহমেদ বলেন, জরাজীর্ণ ভবনের ফলে আমাদের কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। বিশেষ করে মৌসুমেরতে আমাদের কার্যক্রম বেশী ব্যাহত হয়। জরাজীর্ণের ফলে কর্মকর্তারা ভবনের নিচে কাজ করতে চায় না। নতুন ভবন ও মেরামতের জন্য পূর্বে কয়েকবার কৃষি অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে আবেদন করা হয়েছে। সর্বশেষ ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরেও করেছি কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোন সুফল পায়নি। 

Advertisement

কমেন্টস