’পরকীয়া সম্পর্ক না ধর্ষণ’, এলাকাজুড়ে তোলপাড়!

প্রকাশঃ জুলাই ১৯, ২০১৭

সংগৃহীত

জাকির হোসেন, মতলব (চাঁদপুর) প্রতিনিধি-

চাঁদপুরের মতলব উত্তরে প্রবাসীর স্ত্রী সালমা ও সাইফুল নামের এক যুবককে আপত্তিকর অবস্থায় পাওয়া নিয়ে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে, এ ঘটনার পরপরই সাইফুলের নামে ‘ধর্ষণ’ মামলা দায়ের করেছে গৃহবধু সালমা। তবে সাইফুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলাটি ‘পরকীয়া সম্পর্ক না ধর্ষণ’! বিষটি নিয়ে এখন পুরো এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। 

গত ১৩ জুলাই সকালে উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের বারুরকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বিগত দিন থেকে গৃহবধু সালমাকে একই বাড়ির চাচাতো দেবর সাইফুল কুপ্রস্তাব দিয়ে আসতো। বিভিন্ন সময় তাকে বিরক্তও করতো। বিষয়টি ওই গৃহবধু বাড়ির লোকজনকেও একাধিকবার জানিয়েছেন। সর্বশেষ গত ১৩ জুলাই সালমা গোয়াল ঘরে কাজ করা অবস্থায় তাকে জোড় করে মুখ ও হাত বেঁধে ধর্ষণ করে সাইফুল।

এলাকাবাসী জানায়, সাইফুল ইসলাম ছেলেটি ভালই ছিল। গৃহবধু সালমার খপ্পরে পড়ে সে নষ্ট হয়ে গেছে। তবে সাইফুলের সাথে প্রবাসী ফারুক মিয়ার স্ত্রী সালমার বিগত দিনের পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী শাহীন বলেন, তাদের দেখে এমন বুঝা গেছে যে, আগ থেকেই যেন তাদের সম্পর্ক রয়েছে।

স্থানীয় নূরুল ইসলাম, আব্দুর রশিদ, উজ্জ্বল সরকারসহ একাধিক লোকজন বলেন, ফারুকের বউয়ের সাথে সাইফুলের পরকীয়া সম্পর্ক আছে। হয়তো কোন বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছে, তাই সে সাইফুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছে। পরকীয়া সম্পর্ক না ধর্ষণ! বিষটি নিয়ে এখন পুরো এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

তবে ধর্ষিত গৃহবধু জানায়, তাকে জোড় করে ধর্ষণ করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই সাইফুল পলাতক রয়েছে। সাইফুলের পারিবারিক সূত্র জানায়, সাইফুল এ ধরনের কোন কাজে জড়িত নেই।

মতলব উত্তর থানার ওসি (তদন্ত) মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ভিকটিমকে মেডিকেল পরীক্ষা করা হয়েছে। তদন্ত চলছে, শেষ হলে সত্যতা জানা যাবে। তবে আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Advertisement

কমেন্টস