জনগণের তৈরি রাস্তা দেখিয়ে সরকারি টাকা আত্মসাৎ

প্রকাশঃ জুলাই ১৭, ২০১৭

আল মাসুদ,  মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি-

সিরাজদিখানে জনগণের টাকায় তৈরি রাস্তা দেখিয়ে সরকারি ৪০ দিনের কর্মসূচির টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার কোলা ইউনিয়নে ছাতিয়ানতলী গ্রামের প্রকল্প মাধ্যামে নতুন রাস্তা নির্মাণ নিয়ে এ অভিযোগ করা হয়।

সরেজমিনে জানা যায়, উত্তর ছাতিয়ানতলী গ্রামের নবনির্মিত মসজিদের রাস্তার জন্য এলাকার জনগণ চেয়াম্যানের কাছে কর্মসূচি বরাদ্দ দিয়ে একটি রাস্তা নির্মাণ করে দেওয়ার কথা বলা হয়। গত ৫ মাস আগে গ্রামের লোকজন মিটিং করে সবার কাছ থেকে টাকা তুলা হয়। ২ লক্ষ ১৪ হাজার টাকা নির্মাণ ব্যয়ে ১৭শ ফুট নতুন রাস্তা তৈরি করা হয়। গত ২ মাস আগে ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার সিমা বেগম নির্মিত রাস্তা উপর ৪০ দিনের কর্মসূচি প্রকল্প বরাদ্দ আবেদন করেন। উপজেলা প্রকল্প অফিস তৈরি করা রাস্তার উপরে মাপ নিয়া ২ লক্ষ টাকায় ৪০ দিনের কর্মসূচি বরাদ্দ দেওয়া হয়। এলাকাবাসীর অভিযোগ করে আমাদের রাস্তা তৈরি করার আগে কোন বরাদ্দ দিল না। এখন অফিসার কীভাবে রাস্তার উপরে টাকা বরাদ্দ দিল। আরো অভিযোগ রাস্তা দেখিয়ে সরকারি টাকা আত্মসাৎ করেছে।

মহিলা মেম্বার সিমা জানান, ‘আমি প্রকল্পটা নিছি। সবাইরে জিজ্ঞাস কইরা নিছি। এলাকাবাসী বলছে সব দিক দিয়া বান্দা দিয়েন। যেদিক দিয়া ভাঙ্গা গেছে সেদিক দিয়া বরাট কইরা দিয়েন। আমি সব দিক দিয়া বান্দা দিছি। আমার ঘাটে সামনে বান্দা হয় নাই। সেথানে আছে ১শত ২০ ফুট জায়গা।’

কোলা ইউপি চেয়াম্যান মীর লিয়াকত আলী জানা, ‘রাস্তাটার জন্য দীর্ঘ দিন আগে বরাদ্দ চেয়ে ছিল। সুযোগ আসায় আমি তার বরাদ্দ দেওয়ার জন্য বলেছি। মহিলা মেম্বার এই প্রকল্পের সভাপতি।’

উপজেলা প্রকল্প অফিসার কাজী ইমতিয়াজ আসফাক জানান, ‘এই রাস্তা আমার ডিপার্টমেন্ট করেছে। ওনারা কি করছে তা আমি জানিনা। আমি ওখানে রাস্তা দিয়েছি বিদায় রাস্তা হয়েছে। আমাদের রাস্তা আমরা বুঝে পাইছি।

কমেন্টস