অবশেষে সংস্কারের মুখ দেখল ঝালকাঠি শহরের প্রধান সড়কগুলো

প্রকাশঃ জুলাই ১৭, ২০১৭

খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি-

দীর্ঘ দিন পরে অবশেষে ঝালকাঠি শহরের প্রধান সড়কগুলো নতুন করে সংস্কার করা হচ্ছে। এতে করে পৌরবাসীর চলাচলে ভোগান্তি লাঘব হবে।

ঝালকাঠি শহরের প্রধান সড়ক গুরুধাম ব্রিজ থেকে সাধনার মোড় পর্যন্ত এর বিভিন্নস্থানে খানা খন্দে ভরা ছিল। একটু বৃষ্টি হলেই সড়কে পানি জমে চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পরেছিল।

পৌরসভা সুত্রে জানা গেছে, বর্তমানে ইউজিআইআইপি-৩ প্রকল্পের আওতায় ১৪ কোটি ২০ লাখ টাকা বরাদ্দে সাড়ে সাত কিলোমিটার আরসিসি সড়ক সংস্কারের কাজ চলছে। এতে করে সড়কগুলো দীর্ঘস্থায়ী হবে, উচু হওয়ায় পানি জমে থাকতে পারবে না। ইতমধ্যে সাধনার মোড় থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় পর্যন্ত সড়কের সংস্কার কাজ সমাপ্ত হয়েছে। দ্রুত গতিতে কাজ চলায় নির্ধারিত সময়ের আগেই সড়কের সংস্কার কাজ সমাপ্ত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। কাজের গুনগত মান ভাল হওয়ায় পৌরবাসীর মধ্যে কোন প্রকারের ক্ষোভ নেই।

ঠিকাদার সুত্রে জানা গেছে, রট, ইনপোটের পাথর, সিলেট সেন্ট বালু ও সিম ওয়ান সিমেন্টসহ উন্নত মানের কাঁচামাল দিয়ে সড়ক সংস্কার কাজ করা হচ্ছে। এছাড়াও ভারত থেকে উন্নত মানের শতভাগ বোল্ডার ভাঙ্গা পাথর দিয়ে কাজ চলছে। এর ফলে এই সড়ক দীর্ঘ দিন টেকসই থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইসলাম ব্রাদার্স নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এই সড়ক কাজ করছে।

ঝালকাঠি শহরের রিক্সাচালক কালাম হোসেন (৪৫) বলেন, ‘২০ বছর ধরে আমি এই শহরের রিক্সা চালাই। এত ভাল রাস্তা আগে কখনও দেখিনি। এর আগে ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে রিক্সা চালাতে অনেক কষ্ট হত। এখন আর কষ্ট হবে না।’

ঝালকাঠি শহরের বাসিন্দা মো. এনামুল হক বলেন, ‘অনেক বছর পরে পৌরবাসী চলাচলের জন্য ভাল সড়ক পেতে যাচ্ছি। কাজের মান ভাল হওয়ায় অনেক দিন টেকসই হবে।’

ঝালকাঠি পৌরসভার উপ-সহকারি প্রকৌশলী কাজী মহাসিন রেজা বলেন, ‘সড়ক সংস্কার কাজের মান ভাল হচ্ছে। বিটুমিন দিয়ে সংস্কার করায় স্থায়িত্ব বেশি হবে। মেইনটেইনেজ খরচ কম হবে। প্রতি বছর আর সংস্কার করা লাগবে না। কমপক্ষে ১০ বছরে কোন সমস্যা হবে না।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার বলেন, ‘পৌরবাসীর চলাচলের জন্য ভাল সড়ক উপহার দিতে পেরে ভাল লাগছে। এই সড়ক সঠিকভাবে ব্যবহার করতে হবে। অতিরিক্ত ওজন বহনকারী ট্রাক চলাচল বন্ধ রাখতে হবে।’

কমেন্টস