জীবননগরে গৃহবধু গলাই দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা

প্রকাশঃ জুলাই ১৬, ২০১৭

মোঃ মিঠুন মাহমুদ জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা)প্রতিনিধিঃ

জীবননগর সুটিয়া গ্রামে রিতনা খাতুন মনা (১৬) নামে এক গৃহবধু গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা  করেছে। 

গত  শুক্রবার রাত সাংসারিক অশান্তির কারণে স্বামীর উপর অভিমান করে গলায়  দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে ।   

জানা যায়, জীবননগর উপজেলার বাঁকা ইউনিয়নের সুটিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীরের ছেলে হাবিবুর রহমানের সাথে হাসাদহ ইউনিয়নের কাটাপোল গ্রামের আব্দুল্লাহর নাবালিকা মেয়ে রিতনা খাতুন মনা(১৬) এর সাথে গত রোজার মাসে মহাধুমধামে বিয়ে হয় ।বিয়ের এক মাস না পেরোতেই সাংসারিক অশান্তির কারণে স্বামীর উপর অভিমান করে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার সময় দরজা আটকিয়ে ঘরের ভিতরে গলাই ফাঁস দেয় । পড়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজন গুরুত্বর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে  জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য  কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন।সেখানে ভর্তি করার আগেই মনা মৃত্যু বরণ করেন ।

দিকে নিহত গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে এলাকায় নানা গুনজোব সৃষ্ঠি হয়েছে ।কেউ বলছে গলাই দড়ি দিয়ে তাকে টাঙ্গিয়ে হত্যা করেছে আবার কেউ বলছে মেয়ে নিজে আত্মহত্যা করেছে । 

এ ব্যাপারে জীবননগর থানার (ওসি)তদন্ত আব্দুল্লাহ আল মামুনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  গৃহবধু লাশ গত শনিবার বিকালে চুয়াডাঙ্গাতেই ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয় ।তবে এ বিষয়ে কোন মামলা বা অভিযোগ হয়নি । 

কমেন্টস