ঝিনাইদহে ১৯ বছর যাবত একটি রাস্তা চলাচলে অনুপযোগী 

প্রকাশঃ জুন ১৮, ২০১৭

জাহিদুর রহমান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালা-লক্ষীপুর গ্রামের রাস্তা টি দীর্ঘ প্রায় ১৯ বছর যাবত এই ইটের রাস্তাটি মেরামতের কোন আলামত পাওয়া যায়নি। এলাকায় একমাত্র চলাচলের রাস্তাটি গ্রামের প্রধান যোগাযোগ মাধ্যম। গ্রামটির প্রধান সড়ক সচল না থাকার কারনে তারা বিভিন্ন প্রকার ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। কিন্তু এলাকার জনপ্রতিনিধিরা রাস্তার হালহকিকত দেখার পর ও তারা বিষয়টি আমলে নিচ্ছে না।

এ রাস্তা তাদের শহর ও বাজারে যাবার এক মাত্র পথ। এ রাস্তা দিয়ে এখন ভ্যান, রিক্সা, বাইসাইকেল, মোটর সাইকেল, ট্রাক ও পায়ে হেটে চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। গ্রামের  মানুষ  তাদের ক্ষেতের ফসল বিক্রি করতে শহরে নিতে পারছে না। রাস্তার অবস্থা বেহাল থাকার কারণে  কোন যানবাহনে কৃষকদের মালামাল নিতে চাচ্ছে না। একটু বর্ষা হলে তো রাস্তা দিয়ে চলতে গেলে মানুষদের পড়তে হয় নানা ভোগান্তিতে। প্রায় ১৯ বছর আগে রাস্তাটিতে ইটের কাজ হয়েছে। এর পর থেকে এ রাস্তায় মেরামতের কোন কাজ হয় নি। গ্রামবাসি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে রাস্তার ব্যাপারে জানালে, তাদের কে জানিয়ে দেয় দ্রুত মেরামতের কাজ হবে ।   

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালা-লক্ষিপুর রাস্তাটি খুবই ব্যস্ততম থাকে সর্বসময়। গ্রামবাসি ও স্কুল ,কলেজের শিক্ষার্থীদের আসা যাওয়ার একমাত্র রাস্তা এটাই।একটু বর্ষা হলে শিক্ষার্থীরা তাদের প্রতিষ্ঠানে যেতে পারে না। রাস্তার দু,পাশে কাদা পানিতে ভর্তি থাকে । রাস্তার ইট উঠে গেছে অনেক আগ থেকে। কাদা পানিতে ভোরে থাকে। কিন্তু ভাগ্যের কি পরিহাস দেখার কেউ নেই।

বিভিন্ন নির্বাচনের প্রার্থীরা ভোট নেবার জন্য বলে থাকেন তারা পাশ করার পর তাদের নাকি প্রথম কাজ হবে এ রাস্তা মেরামত । কিন্তু ভোটে পাশ করার পর কেউ মনে রাখেনি দেওয়া সেই প্রতিশ্রুতি। আগে এলাকাবাসি স্তর ভিত্তিক জনপ্রতিনিধিদের কাছে রাস্তার ব্যাপারে গেলে তাদের কে জানিয়ে দেওয়া হয় আপনাদের রাস্তার কাজ তাড়াতাড়ি করা হবে । কিন্তু হাজারো প্রতিশ্রুত শুনার পর ও কেউ তাদের কথা রাখেনি ।

কমেন্টস