বনানীর আলোচিত ধর্ষণ, জিজ্ঞাসাবাদে সাদমান ও সাফাতের সত্যতা স্বীকার

প্রকাশঃ মে ১২, ২০১৭

বিডিমর্নিং ক্রাইম ডেস্ক-

রাজধানীর বনানীতে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে দাওয়াত করে দুই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ সাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফকে গ্রেপ্তারের পরে সকালে গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে নেওয়া হয়।পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় প্রধান আসামি আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার হোসেনের ছেলে সাফাত আহমেদ ও তার সহযোগী রেগনাম গ্রুপের মালিক মোহাম্মদ হোসেন জনির ছেলে সাদমান সাকিফকে। জিজ্ঞাসাবাদ ঘটনার সত্যতা পেয়েছে পুলিশ। রিমান্ডে নেওয়ার পর তাদের কাছ থেকে আরও তথ্য পাওয়া যাবে বলেও আশা করা হচ্ছে।ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানিয়েছেন।

বনানীতে ধর্ষণ মামলার দুই আসামি সাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা পেয়েছে পুলিশ। রিমান্ডে নেওয়ার পর তাদের কাছ থেকে আরও তথ্য পাওয়া যাবে বলেও আশা করা হচ্ছে। ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানিয়েছেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে শুক্রবার দুপুরে এই প্রেস ব্রিফিং হয়। কৃষ্ণপদ রায় আরও জানিয়েছেন, দুই আসামি দাবি করেছে অভিযোগকারী তরুণীদের সঙ্গে তাদের সম্মতিক্রমেই তারা যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছে।

কৃষ্ণপদ রায় বলেন, ‘আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। রিমান্ডে নেওয়ার পরে প্রকৃত জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও তথ্য পাওয়া যাবে। তদন্তে আশা করছি  বিষয়টিকে একটি যৌক্তিক পর্যায়ে নিয়ে যাবো। এই মামলার তদন্তকে একটি মডেল হিসেবে উপস্থাপন করা হবে।’

Advertisement

কমেন্টস