কুড়িগ্রামে শুরু হতে যাচ্ছে ৮দিন ব্যাপী ‘সৈয়দ শামসুল হক নাট্য উৎসব’

প্রকাশঃ মার্চ ২০, ২০১৭

মনিরুজ্জামান, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

“আমাদের মঞ্চ আমাদের মুক্তিযুদ্ধ” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতি সংগঠন প্রচ্ছদ, কুড়িগ্রামের আয়োজনে আগামী ২২ মার্চ থেকে কুড়িগ্রাম পৌরসভা মিলনায়তনে শুরু হচ্ছে সব্যসাচী লেখক সৈয়দ হক স্মরণে ৮ দিন ব্যাপী ‘সৈয়দ শামসুল হক নাট্যোৎসব’ ২০১৭।

উৎসব উপলক্ষে আগামী বুধবার সকালে পৌরসভা চত্বর থেকে নাট্যকার্মীদের বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হবে। সন্ধ্যায় বিশিষ্ট নাট্যজন ও অভিনেতা মামুনুর রশিদ এ উৎসবের উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি মো. জাফর আলী।

জেলা প্রশাসক খান মো. নূরুল আমিন এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, পুলিশ সুপার মো. মেহেদুল করিম, পৌর মেয়র আব্দুল জলিল, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডল, বিশিষ্ট কথা শিল্পী কবি পত্নী আনোয়ারা সৈয়দ হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. ইসরাফিল শাহীন, বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশান এর সেক্রেটারী জেনারেল আকতারুজ্জান সহ বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্বরা।

৮ দিনব্যাপী এ উৎসবে ভারতের ‘কল্যাণী নাট্যচর্চা কেন্দ্রসহ দেশ সেরা সব নাট্য দল এতে অংশ নেবে।  মঞ্চ নাটকের এই উৎসবে উদ্বোধনী দিনের সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘থিয়েটার এন্ড পারফর্মেন্স স্টাডিজ বিভাগের’ সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের সৃষ্টি সম্ভার থেকে নির্বাচিত তিনটি বিষ্ময়কর সৃষ্টি কর্মের সংশ্লেষ, “বহ্নি বিসর্জন-ব-দ্বীপ, ২য় দিনে ভারতের কল্যাণী নাট্যচর্চা কেন্দ্রের সৈয়দ হকের সাড়া জাগানো নাটক , “নুরুল দিনের সারাজীবন” এর ১৯৭১ সনে স্বাধীনতা অর্জনের পূর্বে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে পাকিস্থানী বর্বর হানাদার বাহিনী এবং তাদের এদেশীয় দোসর নরঘাতক রাজাকার আলবদর, আল শামস্ বাহিনীর প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় ও অংশগ্রহণে গণহত্যা ও নারী ধর্ষণের নির্মমতার দলিল অনন্ত হিরার ‘কনডেমড সেল’ পরিবেশন করবে।

উৎসবের ৩য় দিনে ঢাকার ‘প্রাঙ্গণে মোর’, ৪র্থ দিন ঢাকার শব্দ নাট্যচর্চা কেন্দ্রে পরিবেশন করবে রাইফেল’, ৫ম দিনে পাবনা ড্রামা সার্কেলের শাহযাদ ফিরদাউস এর শাইলোকের বাণিজ্য বিস্তার উপন্যাস অবলম্বেবে নাটক ‘ শাইলোক এন্ড সিকোফ্যান্টস’ পরিবেশন করবে। ৬ষ্ঠ দিনে পরিবেশন করবে সিরাজগঞ্জ নাট্যলোকের, পুরুষ শাষিত সমাজে নারীর দুঃখ যন্ত্রনার কাহিনী,  নারী নসিমন, ৭ম দিন রংপুর নাট্য কেন্দ্রর ‘ হিজড়া সম্প্রদায়ের আনন্দ হাসির আড়ালে ভয়ানক এক যন্ত্রণার কথা নিয়ে পরিবেশন করবে ‘শিখন্ডী কথা’। উৎসবের শেষের দিন প্রচ্ছদ কুড়িগ্রামের পরিবেশনায় গোলাম সারোয়ারের নির্দেশনায় দম্ ফাটানো হাসির নাটক মলিয়েঁরের ‘ঘর জামাই।

প্রচ্ছদ কুড়িগ্রামের সভাপতি জুলকারনাইন স্বপন এবং সাধারণ সম্পাদক ও উৎসব কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল ভৌমিক জানান, কুড়িগ্রামের মঞ্চ না থাকায় আমরা কিছুটা সমস্যায় আছি, তার পরেও উৎসবের সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে দর্শকদের ব্যাপক উপস্থিতি ও দলগুলোর সফল মঞ্চায়নের মাধ্যমে এ উৎসব সফল হবে। এজন্য কুড়িগ্রাম বাসীর সহায়তা কামনা করছি।

কমেন্টস