তজুমদ্দিনে ২৩টি দোকানে অগ্নিকাণ্ডে দেড়কোটি টাকার মালামাল পুড়ে ছাই

প্রকাশঃ মার্চ ২০, ২০১৭

সংগৃহীত

সাদির হোসেন রাহিম, ভোলা প্রতিনিধি-

ভোলার তজুমদ্দিনের শিবপুর খাসেরহাট বাজারের মেঘনা রোডে অগ্নিকাণ্ডে ২৩টি দোকানসহ দোকানের সকল মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

সোমবার রাত প্রায় ১২টা ৩০ মিনিটের দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক লাইন থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডের পর পুড়ে যাওয়া দোকানগুলোর অবশিষ্ট

অগ্নিকাণ্ডের পর পুড়ে যাওয়া দোকানগুলোর অবশিষ্ট

খবর পেয়ে তজুমদ্দিন, বোরাহানউদ্দিন ও ভোলা সদরসহ ফায়ার সার্ভিসের মোট ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে আসে ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় প্রায় ৩ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনা হয়। এসময় রাতে তজুমদ্দিন উপজেলা নির্বাহি অফিসার জনাব জালাল উদ্দিন ও তজুমদ্দিন থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভাতে সহযোগীতা করে।

আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা চালিয়ে আহত হন তজুমদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমিন মহাজন ও কলেজ ছাত্রলীগের সাঃ সঃ সবুজ পাটোয়ারীসহ প্রায় আরো ২০ জন স্থানীয় জনগণ।  অগ্নিকান্ডে প্রায় দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পরবর্তীতে সকালে সার্কেল এএসপি জনাব রফিকুল ইসলাম, তজুমদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ  (ওসি) শাহিন মন্ডল, শম্ভুপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক দেওয়ান, যুবলীগ সভাপতি শহীদুল্ল্যাহ কিরণ, যুবলীগ সাঃ সঃ আব্দুর রহমান সহ স্থানীয় অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, পুড়ে যাওয়া দোকান গুলোর অধিকাংশ মালিক তাদের পূঁজির সবটাকা দিয়ে বিভিন্ন এনজিও সংস্থা থেকে লোন নিয়ে অনেক কষ্টে  দোকান ভাড়া নিয়ে তাদের এই প্রতিষ্ঠানগুলো গড়ে তুলেছিলো। অনেকের পরিবারকে  তাদের দোকানের আয়ের উপর নির্ভরশীল থাকতে হয়। কারণ, তাদের এই দোকানের আয়ের টাকায় তাদের সংসার চালিত হতো।

কমেন্টস