চামড়া খাত পিছিয়ে পড়ায় পূরণ হয়নি ৮ মাসের রপ্তানির লক্ষ্য

প্রকাশঃ মার্চ ১২, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক:

রপ্তানিতে পিছিয়ে পড়ছে চামড়া খাত। চলতি অর্থবছরের ৮ মাসে প্রায় ৯০ কোটি ডলার রপ্তানির লক্ষ্য ঠিক করা হলেও তা অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে এ খাত। সাভারে ট্যানারি স্থানান্তরের ধকল ও পর্যাপ্ত সংরক্ষণ ব্যবস্থার অভাবে রপ্তানি কমেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তবে রপ্তানি আদেশ ধরতে চামড়া শিল্পনগরীতে দ্রুত সিইটিপি চালুর পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

বিশ্বে চামড়ার জুতা ব্যাগ ও অন্যান্য চামড়াজাত পণ্যের বাজার প্রায় ২২ হাজার কোটি ডলারের। গত অর্থবছরে বাংলাদেশ থেকে চামড়া ও চামড়াজাত পণ্যের রপ্তানি ছিল ১২৩ কোটি ডলারের। রপ্তানি খাতে পোশাকের পরই এর অবস্থান।

চলতি অর্থবছরে চামড়া খাতে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৩৮ কোটি ডলার। তবে সেই লক্ষ্য অর্জন এখনো অনেক পিছিয়ে। চলতি বছর প্রথম ৮ মাসে চামড়া খাত থেকে রপ্তানি ৭৮ কোটি ডলার। যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৫ শতাংশ কম।

ট্যানারি মালিকেরা বলছেন, সাভারে কারখানা স্থানান্তরের ধকল এখনো কাটেনি চামড়া খাতে। স্থানান্তরিত ১৫৪টি কারখানার মধ্যে উৎপাদনে ৭০টি। সংরক্ষণ ব্যবস্থার অভাবে কাঁচামাল নষ্টের কারণেও রপ্তানি কমছে বলে জানালেন ব্যবসায়ীরা।

তবে রপ্তানি আদেশ বাড়াতে চামড়া শিল্পনগরীতে কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগার বা সিইটিপি চালুর বিকল্প দেখছেন না বিশেষজ্ঞরা।

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চামড়া খাতে বিশ্ববাজারে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পণ্যে বৈচিত্র্য আনা ও মূল্য সংযোজনের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।

কমেন্টস