১৬ আগস্টের মধ্যে বোনাস ও ১৯ আগস্টের মধ্যে শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের নির্দেশ

প্রকাশঃ আগস্ট ৯, ২০১৮

ফাইল ছবি

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ঈদুল আজহার বোনাস ১৬ আগস্টের মধ্যে ও ১৯ আগস্টের মধ্যে চলতি মাসের বেতন পরিশোধ করতে তৈরি পোশাকসহ বিভিন্ন শিল্প খাতের মালিকদের নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

আজ বৃহস্পতিবার শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে পোশাক কারখানা এবং অন্যান্য শিল্পপ্রতিষ্ঠান ও কারখানার সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনায় ‘ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টবিষয়ক কোর কমিটি’র বৈঠক শেষে এ নির্দেশনা দেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু।

বরাবরের মতোই পর্যায়ক্রমে শ্রমিকদের ছুটি দিতে বলা হয়েছে জানিয়ে মুজিবুল হক বলেন, ঈদুল ফিতরের আগে নেয়া সভার সিদ্ধান্তগুলো যথাযথভাবে বাস্তবায়ন হওয়ায় শ্রমিক অসন্তোষ দেখা যায়নি।

তিনি বলেন, ঈদুল ফিতরে এক পোশাক কারখানার মালিক শ্রমিকদের বেতন না দিয়ে কারখানা বন্ধ করে দিয়েছিল। পরে সরকার ওই মালিকদের সঙ্গে কথা বলে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন দেয়ার ব্যবস্থা করে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত ঈদেও সমস্যা হয়নি, শ্রমিকদের কোনো অসন্তোষ দেখা যায়নি। এই ঈদেও হবে না।

বৈঠকে উপস্থিত শিল্প পুলিশের মহাপরিচালক আব্দুস সালাম বলেন, ‘ঈদুল আজহার আগে গার্মেন্টস সেক্টরে দেশের কোথাও কোনও ধরনের নৈরাজ্য বা অরাজকতার সৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন অঞ্চলের ২৬টি কারখানায় বেতন ও বোনাস পরিশোধের বিষয়ে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। বিজিএমইএ উদ্যোগ নিলে এই সংকটও কেটে যাবে।’

বৈঠকে উপস্থিত বিজেএমইএ’র সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান কচি বলেন, ‘এটি কোনও সমস্যা নয়, আলাপ-আলোচনা করে এই সমস্যা সমাধান করা সম্ভব।’

বৈঠকে জানানো হয়, আশুলিয়ার বাধন করপোরেশন এবং কোরিয়ান কারখানা ইয়াং জ্যু ফ্যাশনে গত এক বছর ধরে বেতন-বোনাস পরিশোধ নিয়ে জটিলতা চলছে যা এখনও বিদ্যমান।

বিকেএমইএর সহসভাপতি মোস্তফা কামাল পাশা, বিজিএমইএর সহসভাপতি এসএম মান্নান কচি এবং শ্রমিকদের পক্ষে রায় রমেশ, সিরাজুল ইসলাম রনি ও লিশা ফেরদৌস বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব আফরোজা খান, শ্রমিক নেতা রায় রমেশ, নিপা ফেরদৌস ও সিরাজুল ইসলাম রনি উপস্থিত ছিলেন।

কমেন্টস