‘রাতের অন্ধকারে ছাত্রীদের হল ছাড়তে বাধ্য করা প্রশাসনের ধৃষ্টতা’

প্রকাশঃ এপ্রিল ২০, ২০১৮

বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলের ছাত্রীদের রাতের অন্ধকারে বের করে দেয়ার ঘটনাকে প্রশাসনের ‘ধৃষ্টতা ’ বলে আখ্যায়িত করেছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্লাটফর্ম সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন। আজ শুক্রবার সকালে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আমরা প্রশাসনকে সব সহযোগিতা করছি। এর মধ্যে কোনো আলোচনা ছাড়াই কেন তারা এমন সিদ্ধান্ত নিল, আমরা তার জবাব চাই।

সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নূর বলেন, কোনো অপরাধ করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেবে, কিন্তু ছাত্রীদের এভাবে বের করে কর্তৃপক্ষ ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাচ্ছে।

সুফিয়া কামাল হলের ঘটনা সম্পর্কে বলেন, আমরা খবর পেয়েছি, রাত ১১টার পরও অনেক ছাত্রী হল থেকে বের হয়ে গেছেন। ছাত্রীদের মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়া হয়েছিল। প্রাধ্যক্ষের কক্ষে অনেককে আটকে রাখা হয়েছিল। অভিভাবক ডেকে রাতের অন্ধকারে ছাত্রীদের হল ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে।

জানা গেছে, ছাত্রীদের হল থেকে বের করে দেয়া হচ্ছে এমন খবরে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সুফিয়া কামাল হলের সামনে জড়ো হন বিভিন্ন আবাসিক হলের ছাত্ররা।

তারা সেখানে স্লোগান দেন- ‘ভয় দেখিয়ে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না, আমার বোন পথে কেন প্রশাসন জবাব চাই।’

বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৩টা পর্যন্ত তারা হলটির সামনে অবস্থান করেন। এ সময় সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নূর শুক্রবার বিকাল ৪টায় দেশের সব কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দিলে অবস্থান তুলে নেন শিক্ষার্থীরা।

কমেন্টস