৩৮ লাখ বাংলাভাষী মানুষকে বাংলাদেশে পাঠাবে ভারত

প্রকাশঃ জানুয়ারি ৫, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

‘অবৈধ  বাংলাদেশি’ বলে গত বছর ৬ লাখ ১৭ হাজারেরও বেশি মানুষকে বাংলাদেশে পাঠায় মিয়ানমার।এই রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ভারতের আসাম রাজ্যে বসবাসরত ৩০ লাখ এবং দেশটির বৃহত্তম রাজ্য উত্তর  প্রদেশে  বসবাসরত ৮ লাখ  বাংলাভাষী মানুষকে ‘বাংলাদেশি’ ঘোষণা দিয়ে তাদের বের করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার।  

ইতোমধ্যে বহু বিতর্কিত এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে আসামের নাগরিকদের একটি খসড়া তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। ওই তালিকায় আসামের ৩ কোটি ২৯ লাখ মানুষের মধ্যে ১ কোটি ৩৯ লাখ মানুষই বাদ পড়েছে! অর্থাৎ প্রকাশিত খসড়া তালিকা বলে দিচ্ছে, নিজেদের ভারতীয় প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে রাজ্যটির ১ কোটি ৩৯  লাখ মানুষ। এদের বাংলাদেশি বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

তবে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও রাজনীতিবিদেরা বলছেন,  ‘অবৈধ বাংলাদেশি’র সংখ্যা ৩০ লাখ থেকে ৪১ লাখের মতো।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা প্রধানত বাঙালি অধ্যুষিত হলেও আসাম, ঝাড়খন্ড এবং ওড়িশায় প্রচুর বাঙালির বাস। তবে দেশটির প্রায় প্রতিটি রাজ্যেই কমবেশি বাঙালি রয়েছে।

তবে মূলত আসাম ও উত্তর প্রদেশ রাজ্য সরকার সেখানে বসবাসরত বাঙালিদের ‘বিদেশি (বাংলাদেশি)’ তকমা দিয়ে রাজ্য থেকে বের করে দেওয়া উদ্যোগ নিয়েছে। এর আগেও এ ধরণের উদ্যোগ নেওয়া হলেও তৃণমূল রাজনৈতিক পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় পিছু হটেছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু এবার তারা আটঘাট বেঁধেই নেমেছে ।

কমেন্টস