‘২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করা হবে’

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭

মোহাম্মাদ মানিক, চিরির বন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করতে বর্তমান সরকার যে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তা বাস্তবায়ন করা কেবল সময়ের ব্যাপার বলে মন্তব্য করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছেন, ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করা হবে। এ ব্যাপারে সন্দেহের কোন অবকাশ নেই। তিনি বলেন, ৯৬ থেকে ২০০১ সাল বাংলাদেশের জন্য স্বর্ণযুগ ছিলো।

গতকাল শনিবার বিকেল ৩টায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের ইউনিয়ন কমপ্লেক্স এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে ইউনিয়ন পরিষদ চত্তরে আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি এসব কথা বলেন।

শিক্ষা ক্ষেত্রে মেয়েরা অনেক এগিয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাদু জানা আছে। বিগত বিএনপি জোট সরকার ১০ বছর ক্ষমতায় থেকে শুধু কথা বলেছে কোন কাজ না করে, দেশকে জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকার গাছ লাগান আর বিএনপি জামাত গাছ কেটে ফেলে। বেগম জিয়া শেখ হাসিনার নাম শুনতেই পারে না। উনি নিজে কিছু করে না, কাউকে করতেও দেয় না। কিন্তু আওয়া লীগ সরকার কথায় নয় কাজে প্রমাণ করেছে, দেশে উন্নয়নের কর্মকাণ্ড কতখানি ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু দেশেই নয়, সারা বিশ্বে এখন আওয়া লীগ সরকারের সুনাম ছড়িয়ে পড়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, প্রাণের দাবিতে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। আমাদের শক্তিতে আমরা তা জায়গা করে নিয়েছি। এ বিজয় বাঙালীর জাতির গৌরব। যে দেশের জন্য বঙ্গবন্ধু জীবন দিয়েছেন, সে দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ করতে কোন নৈরাজ্য করতে দেয়া হবেনা।

নশরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ্ আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, খানসামা উপজেলা চেয়ারম্যান মো:সহিদুজ্জামান শাহ্, খানসামা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিউল আযম চৌধুরী লায়ন, চিরির বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আয়ুবর রহমান শাহ্, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আহসানুল হক মুকুলসহ উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মন্ত্রী সকাল ৯.৩০ মি: চিরির বন্দরে বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিত্বে পুস্প অর্পণ করেন । সকাল ১০ টায় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন। ১০.৩০ মি; সরকারি কর্মসূচিতে যোগদান করেন।

কমেন্টস