পুলিশকে নির্যাতন চালানোর লাইসেন্স দেয়া হয়েছে : ফখরুল

প্রকাশঃ সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৭

বিডিমর্নিং পলিটিক্যাল ডেস্ক-

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর বর্তমান গণবিরোধী সরকার (আওয়ামী লীগ)  চালাচ্ছে অন্তহীন অত্যাচার। এর যেন কোন শেষ নেই। মনে হয় পুলিশ ও ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসীদেরকে দেশের মানুষের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ণ চালানোর লাইসেন্স দেয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে গণমাধ্যমকে দেয়া এক বিবৃতিতে এ কথা জানান ফখরুল। সারাদেশে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের গুম ও গ্রেফতারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে এ বিবৃতি দিয়েছেন মির্জা ফখরুল।

বিবৃতিতে তিনি জানান, দেশের মানুষের সকল অধিকার খর্ব ও ধ্বংস করে নির্যাতন-নিপীড়ণে মানুষকে নির্যাতিত ও নিষ্পেষিত করে গুম-খুন-অপহরণ, গ্রেফতার ও সন্ত্রাসের তান্ডবলীলার মাধ্যমে ক্ষমতা ধরে রাখাই বর্তমান ক্ষমতাসীনদের প্রধান লক্ষ্য।

ফখরুল বলেন, দেশের মানুষের স্বাভাবিক জীবন-যাপনের অধিকার, নির্ভয়ে চলাফেরার অধিকার সর্বোপরি সংবিধান স্বীকৃত মৌলিক অধিকার এখন ভুলুন্ঠিত। স্বজন হারানোদের আর্তনাদে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠলেও রাষ্ট্রক্ষমতার নেশা বর্তমান সরকারকে এতটাই বেপরোয়া করেছে যে, স্বজন হারানোদের আর্ত-চিৎকার তাদের কর্ণকুহরে প্রবেশ করছে না।

বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে রংপুর জেলাধীন পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সদস্য নায়েব আলী আকন্দকে জনসমক্ষে হাজির করার জোর দাবী জানান। এছাড়া তিনি রাজশাহী জেলাধীন চারঘাট উপজেলা বিএনপি নেতা সেন্টু, যুবদল নেতা খালেক, ছাত্রনেতা সজীব ও রুমন এর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভুয়া ও বানোয়াট মামলা প্রত্যাহার করে তাদের নি:শর্ত মুক্তি দাবী করেন।

গণমাধ্যমকে দেয়া এ বিবৃতিতে তিনি জানান, রংপুর জেলাধীন পীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সদস্য নায়েব আলী আকন্দকে গত তিন দিন পূর্বে গুম করা হয়েছে। সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজ করার পরও তার কোন হদিস মেলেনি। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে গ্রেফতার কিংবা আটকের বিষয়টি স্বীকার করেনি। এছাড়া রাজশাহী জেলাধীন চারঘাট উপজেলা বিএনপি নেতা সেন্টু, যুবদল নেতা খালেক, ছাত্রনেতা সজীব ও রুমনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অপর এক শোকবার্তায় বাগারপাড়া পৌর বিএনপি’র সভাপতি মতিয়ার রহমান কারাগারে মৃত্যুবরণ করায় গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করে বিএনপির মহাসচিব জানান, একদিকে বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দিয়ে কারাগারে নিক্ষেপ করছে, অন্যদিকে তাদেরকে সুচিকিৎসা না দিয়ে কারাগারেই মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে।

 

কমেন্টস