Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ বুধবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৩ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

সুদর্শন যুবকদল সুস্থ হও!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারী ২০১৮, ০১:২৮ PM আপডেট: ১৬ জানুয়ারী ২০১৮, ০১:২৮ PM

bdmorning Image Preview


নিও ডিকস্তা।।

হিরো আলম এর কথা মনে পড়ে, একদা আমরা তাকে মজার পাত্র বানিয়ে ফেলেছিলাম। সহস্র ট্রল সোশ্যাল মিডিয়াতে। কিংবা খান হেলাল, যে প্রকাশ করতে চাইছিলো সে ভালো ইংরেজী জানে, ভালো নাচতে জানে। নিজ গায়ে সেলিব্রেটি তকমা লাগিয়ে ছিলো।

সম্প্রতি একটা ভিডিও তে প্রকাশ্যে মেয়েদের ধুমপান নিয়ে জ্ঞান দেয়া হয়েছে। পাব্লিক প্লেসে ধুমপান মানেই অপরাধ।।এটা আইন কানুনের ব্যাপার। সুদর্শন যুবক তার ভিডিওতে উপস্থাপন করেছেন মেয়েদের পাব্লিক প্লেসে ধুমপানের বিরুদ্ধে।আইনের কোথাও বলা নাই, পুরুষ হলে তাকে জরিমানা করা হবেনা। কিংবা নারী হলে তার প্রতিকঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে কাজ যদি করতেই হয় তবে আগে বুঝতে হবে কি বলতে চাই, যা বলতে চাই তা আদৌ কি ঠিক না বেঠিক। সোশ্যাল এওয়ারনেস নিয়ে কাজ করার আগে জানা উচিৎ, সোশ্যাল এওয়ারনেস কি ?

আমি কখনোই বলবো না নারীদের পাব্লিক প্লেসে ধুমপান করতে, তবে হ্যাঁ নারী পুরুষ দুজনের জন্যই পাব্লিকপ্লেসে ধুমপান করা অপরাধ। সমঅধিকারের কথা যখন বলতে ইচাচ্ছে নতখন বুঝতে হবে কোনটা সম অধিকার সে বিষয়ে পড়ালেখা করা উচিৎ ছিলো।

ইন্টারনেটদুনিয়ামারাত্নকস্থান, এখানে ভাইরাল হওয়া সেকেন্ডের ব্যাপার। যেকোন বিষয়ে কোন কন্টেন্ট ভিডিও বানাবার আগে অবশ্যই একটু পড়া লেখা করে, বিবেক বুদ্ধি খাটিয়ে কাজ করা উত্তম। ধুমপানকরাইযেখানেঅস্বাস্থ্যকরসেখানেসেটাকেনিয়েকনটেন্টবানানোতোরীতিমতঅপরাধ।

বর্তমান বাংলাদেশে যখন সোশ্যাল মিডিয়াতে মূল্যবোধের অবক্ষয় এর মাত্রা বাড়ছে, প্রাইভেট ভিডিও পাব্লিক হয়ে ভাইরাল হচ্ছে। তখন ভিডিও নির্মাতা সমাজকে উস্কে দেওয়ার জন্য বার্তা দিলেন, নারীদের ধুমপান করতে দেখলে যেন ভিডিও করেসামাজিক মাধ্যম এ আপ্লোড দেয়া হয়। যাআরেকটি ভয়ানক অপরাধ স্বরূপ।

জামা খুলে ঘুরে বেড়ানো কোন বড় কাজের উদাহরণ নয়। শ্লালিনতা সম্পর্কে বোধ থাকলে কোন ছেলেও উলঙ্গ দেহে রাস্তায় হাটবে না। নারীকে যিনিএই চ্যালেঞ্জ ছুড়েন তাতে উনার বুদ্ধির স্তরের জানান দেয়। সমস্যা হলো আপনাদের মত মানুষ, নারীকে সর্বদা নারী হিসেবেই যাচাই করেন। মানুষ হিসেবে সবাইকে এক কাতারে আনতে এখনো আপনাদের বহু পথ পাড়ি দিতে হবে।

প্রথমে হিরো আলমের কথা বলেছিলাম, তার ভিডিও নিছক বিনোদন বাদে কিছুই নেই। খান হেলাল এর কথা বলছিলাম, তাও ভালো উনি নিজেকে নিয়ে মেতে আছেন। তবে এই ভিডিও নির্মাতা অন্ততনিজেকে বোধসম্পন্ন মানুষ বলে পরিচয় দিতে পারেনি।

ভিডিও বানানোর জন্য সময়, মেধা,  টাকা খরচ করছেন, অনুরোধ রইলো এই চিন্তাধারা, অসুস্থ মস্তিস্ক নিয়ে পাব্লিকলি কিছু না বানানোর। এতে সমাজ, প্রজন্ম অসুস্থ ভাইরাল ভাইরাসের হাত হতে রক্ষা পাবে। আশা করি ভিডিও নির্মাতা, সুদর্শন যুবক দল, অন্যান্য আর্টিস্ট সুস্থ হয়ে উঠবেন।

Bootstrap Image Preview