কুবিতে সাংবাদিক লাঞ্ছনার ঘটনায় শাবি প্রেসক্লাবের নিন্দা

প্রকাশঃ এপ্রিল ২, ২০১৮

আরাফ আহমদ, শাবি প্রতিনিধিঃ

কুশিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিক মহিউদ্দিন মাহিকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছনার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন ‘শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব’।

সাংবাদিক লাঞ্ছনার সাথে জড়িত ছাত্রলীগ নেতা আব্দুর রহমান (বাংলা বিভাগ, ১১ তম ব্যাচ) ও নূর উদ্দিন রাসেলের (বাংলা বিভাগ, ১০ তম ব্যাচ) বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মনসুর ও সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল্লাহ ওয়াসিফ।

আজ সোমবার এক যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেন, গত পহেলা এপ্রিল রবিবার বিকেলে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের কাঁঠাল তলায় ‘দৈনিক পুর্বাশা’র কুবি প্রতিনিধি মহিউদ্দিন মাহিকে ডেকে নিয়ে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন কুবি ছাত্রলীগের দুই নেতা। এসময় তারা ওই সাংবাদিককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন বলে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানতে পেরেছি। এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি আরেক সাংবাদিককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন বেশ কিছু ছাত্রলীগ নেতাকর্মী।

এ ধরণের অতর্কিত হামলা ও লাঞ্ছনার ঘটনায় সাংবাদিকতার মত একটি স্বাধীন ও মুক্ত পেশা হুমকির সম্মুখীন হবে বলে আমরা মনে করি। আমরা চাই, শুধুমাত্র কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় নয় সারা বাংলাদেশের সকল ক্যাম্পাস প্রতিবেদকদের সুরক্ষায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, রাজনৈতিক সংগঠন, সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যম এবং সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ যথেষ্ট উদার ও গণতান্ত্রিক মানসিকতা পোষণ করবেন।

তারা আরো বলেন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকরা বারবার হামলা ও লাঞ্ছনার শিকার হলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর শাস্তিমূলক কোন ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি। কুবি প্রশাসনের এমন আচরণ অত্যন্ত দু:খজনক। আমরা আশা করবো কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনিযুক্ত উপাচার্য দ্রুততম সময়ের মধ্যে দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেন। এছাড়া সাংবাদিক লাঞ্ছনার সাথে জড়িতদের আজীবন বহিস্কার করে বঙ্গবন্ধুর হাতেগড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে আগাছামুক্ত করতে শাখা ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান তারা।

কমেন্টস