রাজধানী থেকে উধাও মিনি ডাস্টবিন

প্রকাশঃ মার্চ ২৫, ২০১৮

ক্রাইম ডেস্ক।।

‘পরিচ্ছন্ন বছর’ আর ‘সবুজ নগরী’ গড়ে তোলার লক্ষ্যে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় বসানো মিনি ডাস্টবিন সমূহেরর প্রায় অর্ধেকই এখন উধাও, চুরি বা নষ্ট হয়ে গেছে। বাকি যেগুলো এখনও টিকে আছে সেসব বিনও ভুগছে অব্যবস্থাপনায়। ডিএসসিসির প্রায় ২২ শতাংশ বিনের মিলেনি কোনো হদিস।

উল্লেখ্য, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রায় ৫ হাজার ৭০০ মিনি ডাস্টবিনের মধ্যে ৫১ শতাংশ এখনও টিকে আছে। বাকি ২৭ শতাংশ বিন এখন মেরামতযোগ্য, আর ২২ শতাংশ বিনের কোনও হদিস নেই।

ঢাকা উত্তর সিটির কর্পোরেশন এলাকায় বসানো মিনি ডাস্টবিগুলোর অবস্থাও প্রায় একই। কিছু উধাও হয়ে গেছে, কিছু আবার ফুটপাতে পরিষ্কার বা রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে পড়ে রয়েছে।

হাবিবুর রহমান নামের স্থানীয় এক দোকানি  জানান,  এখনো টিকে থাকা মিনি ডাস্টবিনগুলো প্রায় সময় ময়লা ভর্তি অবস্থায় থাকে, ঠিকমত পরিষ্কার করা হয় না। যে কারণে পথচারীরাও এসব আর ব্যবহার করে না।

অন্যদিকে ফুটপাতের দোকানিদেরকেই দোষারোপ করেছেন সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তারা। তারা দাবি করে বলেন, ফুটপাতের দোকানিরাই মূলত এসব মিনি ডাস্টবিন নষ্ট করেছে। ফুটপাতে দোকান বসানোর জন্য অনেক বিন ভেঙে ফেলেছে বা উল্টিয়ে রেখেছে। এ ছাড়া এসব মিনি ডাস্টবিন ভাঙারির দোকানে বিক্রির উপযোগী হওয়ায় দুর্বৃত্তরা এগুলো চুরি করে বিক্রি করেছে।

ঢাকা উত্তর সিটির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক কমোডোর এম এ রাজ্জাক মিনি ডাস্টবিনের এমন বেহাল অবস্থার বিষয়ে বলেন, নতুন কোনো পন্থায় ডাস্টবিন বানানো যায় কিনা তা নিয়ে কাজ চলছে।

অন্যদিকেম, সিটি কর্পোরেশন ডাস্টবিন রক্ষাণাবেক্ষণে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, বলে মন্তব্য করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটির (ডিএসসিসি) অতিরিক্ত প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক খন্দকার মিল্লাতুল ইসলাম।

তিনি আরো জানান, প্রায় ৪৯ শতাংশ মিনি ডাস্টবিন নষ্ট হয়ে গেছে। যে পরিমাণ নষ্ট হয়েছে, তা পুনরায় বসাতে বিন ক্রয়ের জন্য চিঠি পাঠানো হয়েছে।

কমেন্টস