৫ টাকা দেয়ার কথা বলে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ৫, ২০১৭

অমর ডি কোস্তা, নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরের গুরুদাসপুরে ৫ টাকার লোভ দেখিয়ে ৬ বছরের শিশু কণ্যাকে ধর্ষণ করেছে প্রতিবেশী রতন আলী সেখ (১৪) নামের এক কিশোর। আজ মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে।

এর আগে সোমবার বিকালে শিশুটির পিতা নাজমুল ইসলাম বাদী হয়ে গুরুদাসপুর থানায় তার বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষন মামলা দায়ের করে। শিশুটি বর্তমানে নাটোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের পুরুলিয়া গ্রামের আয়েজ উদ্দিনের ছেলে রতন ওই শিশু কণ্যাকে তার সাথে ঘুরতে গেলে ৫ টাকা দিবে বলে জানায়। শিশুটিকে ৫ টাকা পাবার আশায় রতনের সাথে ঘুরতে থাকে। বেড়ানোর এক পর্যায়ে বাড়ীর পাশে রহিদুলের পানের বরজে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে রতন।

শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।  শিশুটি গ্রামের মসজিদের শিশু শ্রেনীতে পড়ালেখা করে। শিশুটির মা-বাবা তার মেয়ের ধর্ষণকারীর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গুরুদাসপুর থানার ওসি (তদন্ত) তারেকুর রহমান সরকার জানান, প্রাথমিক তদন্তে শিশুটির ধর্ষণের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। আসামী রতনকে  আটক করে থানা হাজতে রাখা হয়েছে।

কমেন্টস