আজ ১৪ নভেম্বরঃ ঝালকাঠির দুই বিচারক হত্যার এক যুগ

প্রকাশঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৭

খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি-

আজ ১৪ নভেম্বর। জেএমবির বোমা হামলায় ঝালকাঠি দুই বিচারক হত্যার ১২তম বছর। ২০০৫ সালের এই দিনে জেএমবির বোমা হামলায় ঝালকাঠির জেলা জজ আদালতের দুই বিচারক শহিদ সোহেল আহমেদ ও জগন্নাথ পাঁড়ে নিহত হন।

আদালতে যাওয়ার পথে জজশীপের গাড়িতে শক্তিশালী বোমা হামলা চালিয়ে দুই জজকে নৃশংশভাবে হত্যা করে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জেএমবি।

সেদিনের ঘটনায় ঝালকাঠিসহ গোটা দেশেই আতংকের সৃষ্টি হয়। ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবনে সৎ ও নিষ্ঠাবান এ দুই বিচারক হত্যার ঘটনা ঝালকাঠিবাসীকে আজও গভীরভাবে শোকাহত করে। বিচারক হত্যার এক যুগে জেলাবাসী চাইছে দেশ থেকে চিরতরে জেএমবিসহ অপশক্তির বিনাশ হোক।

আজকের এই দিন সকালে আদালতে যাওয়ার সময় ঝালকাঠি পূর্বচাঁদকাঠী এলাকায় জজ কোয়াটারের রাস্তায় দুই জজ সোহেল আহমেদ ও জগন্নাথ পাঁড়ে কে বোমা হামলা চালিয়ে হত্যা করে নিষিদ্ধ সংগঠন জেএমবি। দুই জজকে চিরকুটটি পড়তে দিয়ে বোমা হামলা চালানো হয়। ঘটনাস্থল থেকে জেএমবির সুইসাইডাল সদস্য ঘাতক মামুনও আহত অবস্থায় ধরা পড়ে।

এ নৃশংশ ঘটনায় জজশীপের ড্রাইভার সুলতান হোসেন বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় অস্ত্র ও বিষ্ফোরক আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় উচ্চ আদালতের নির্দেশে জেএমবি প্রধান শায়খ আব্দুর রহমানসহ শীর্ষ ৬ জঙ্গির ফাঁসি কার্যকর হয়।

এদিকে নিহত দুই বিচার হত্যার ঝালকাঠির সে স্থানে এ বছর নির্মাণ করা হচ্ছে স্মৃতিস্তম্ভ। দুই বিচারক স্মরণে দিবসটি উপলক্ষে সেখানে পুষ্পার্ঘ অর্পণসহ স্মরণ সভার আয়োজন করেছে ঝালকাঠি জেলা জজশীপ ও জেলা আইনজীবী সমিতি। ঝালকাঠির এ দুই বিচারক হত্যাকারীদের ফাঁসি হলেও আজও দেশ থেকে জেএমবি বা অপশক্তি নির্মূল হয়নি।

ঝালকাঠি আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সরকারি কৌশলি আব্দুল মান্নান রসূল দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালনের কথা জানান। সেই সাথে জঙ্গিবাদমুক্ত বাংলাদেশ দেখার কামনা করেন।

কমেন্টস