মারমা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুইজন গ্রেফতার

প্রকাশঃ জানুয়ারি ১৫, ২০১৭

বান্দরবান প্রতিনিধি-
বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় একটি আবাসিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী এক মারমা ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও চিত্র ধারণ করার অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ আজ রবিবার গ্রেফতার দুজনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। বান্দরবান সদর হাসপাতালে ওই ছাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।

ওই ছাত্রী হাসপাতালে প্রতিবেদককে জানিয়েছে, পূর্ব পরিচয়ের সূত্রে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় মিজানুর রহমান (২৩) তাকে ডেকে নিয়ে যান। সঙ্গে সাইফুল ইসলাম ওরফে সেলিমও ছিলেন। ছাত্রীর অভিযোগ, আবাসিক বিদ্যালয় থেকে কিছু দূরে নিয়ে মিজানুর রহমান প্রথমে তাকে অশ্লীল ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখান। সে প্রতিবাদ করলে মিজানুর তাকে ধর্ষণ করেন। এ ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করেন সাইফুল ইসলাম (২৪)।

আবাসিক বিদ্যালয়টির শিক্ষক ও ছাত্রীর বড় ভাই জানিয়েছেন, ঘটনার পর বিদ্যালয়ে গিয়ে বিষয়টি জানালে আবাসিকের ছাত্ররা মিজানুর ও সেলিমকে ধরে ফেলে। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, কিছুদিন আগে প্রেমের ভান করে মিজানুর ওই ছাত্রীর সঙ্গে কিছু ছবি তোলেন। ওই ছবি বিকৃত করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে ভয় দেখিয়ে মিজানুর ১০ জানুয়ারি আরেকবার ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছেন। ওই সময়ও সাইফুল ও ছাত্রীর এক বান্ধবী ছিল।

আলীকদম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আপ্পেলা রাজু নাহা বলেছেন, গ্রেফতার মিজানুর ও সাইফুলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। তাঁরা ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণের কথা স্বীকার করেছেন। দুজনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বান্দরবান সদর হাসপাতালে ছাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।

কমেন্টস